১০ লক্ষ টাকার রশিদ জালিয়াতি ঘটনায়,এক প্রতারক আটক

মোঃ আল মামুন, জেলা প্রতিনিধি,ব্রাহ্মণবাড়িয়া: ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় আল আরাফাহ ইসলামী ব্যাংকে ১০ লাখ টাকার জমা রশিদ জালিয়াতি করার ঘটনায় রাহুল কর্মকার নামে সাবেক এক ব্যাংক কর্মকর্তাকে আটক করা হয়েছে।
বৃহস্পতিবার (২৫ নভেম্বর ) সন্ধ্যা সাড়ে ৬টায় রাহুলকে পুলিশের কাছে সোপর্দ করে ব্যাংক কর্তৃপক্ষ। রাহুল ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলা শহরের কালীবাড়ি মোড় এলাকার প্রেমানন্দ কর্মকারের ছেলে। তিনি এনআরবিসি ব্যাংকের সাবেক ক্যাশ কর্মকর্তা।
পুলিশ ও ব্যাংক সূত্রে জানা গেছে, রাহুল আল আরাফাহ ইসলামী ব্যাংকের ব্রাহ্মণবাড়িয়া শাখার মাধ্যমে বৃহস্পতিবার সকালে গাজীপুরের এজেন্ট ব্যাংকিং আউটলেটের একটি হিসাব নম্বরে দু’টি রশিদের মাধ্যমে ১০ লাখ টাকা জমা দেন বলে হিসাবধারী ঝন্টু রায়ের কাছে দাবি করেন। কিন্তু দুপুর নাগাদ টাকা জমা না হওয়ায় বিষয়টি গাজীপুরের এজেন্ট ব্যাংকিং আউটলেট কর্তৃপক্ষ ব্রাহ্মণবাড়িয়া শাখা কর্তৃপক্ষকে জানায়। রাহুল টাকা জমা না দিয়েই নিজের বানানো সিলযুক্ত জমা রশিদ নিয়ে দুপুর ৩টার দিকে ব্যাংকে আসেন। পরে রশিদ দেখে ব্যাংক কর্তৃপক্ষ জাল বলে শনাক্ত করে তাকে আটক করেন।
আল আরাফাহ ইসলামী ব্যাংকের ব্রাহ্মণবাড়িয়া শাখার ব্যবস্থাপক আব্দুর রহমান ভূইয়া জানান, রাহুল টাকা জমা না দিয়েই দুপুরে ব্যাংকে এসে হিসাব নম্বরে টাকা না ঢোকার কারণ জানতে চান। তিনি যে জমা রশিদটি দেখিয়েছেন, সেটিতে দেওয়া সিলটি নকল। রাহুল নিজেই সিল বানিয়েছেন। ঊর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষের সঙ্গে আলোচনা করে তাকে পুলিশের কাছে সোপর্দ করা হয়েছে।
ব্রাহ্মণবাড়িয়া সদর মডেল থানা পুলিশের ওসি মোহাম্মদ এমরানুল ইসলাম জানান, ব্যাংক কর্তৃপক্ষ লিখিত অভিযোগ দেবে। অভিযোগের আলোকে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেয়া হবে।