হাটহাজারীতে এবার ১১৪ টি পূজা মন্ডবে দূর্গা পূজা উদযাপন করা হবে

 

  • মোঃ আবু তৈয়ব.  হাটহাজারী ( চট্টগ্রাম)  প্রতিনিধি  :
সনাতন ধর্মাবলম্বীদের সবচেয়ে বড় উৎসব শারদীয় দুর্গাপূজাকে সামনে রেখে হাটহাজারী  উপজেলা ও থানা প্রশাসন সহ সকল আইনশৃঙ্খলা  বাহিনীর নিরবিচ্ছিন্ন তৎপরতার চলছে। অন্যদিকে এগিয়ে চলেছে প্রতিমা তৈরীর কাজ। তুলির শেষ আঁচড়ে দেবীর আগমনী বার্তা জানান দিচ্ছে। প্রতিমার মাটির কাজ শেষে এখন চলছে রং তুলির আঁচড়ের শেষ মূহুর্তের কাজ। দেবীর আগমন ধ্বনি বেজে গিয়েছে আকাশে বাতাসে।
 আগামী ১ অক্টোবর ষষ্টীর মধ্য দিয়ে শুরু হবে দূর্গাপূজার আনুষ্ঠানিকতা। ২৫ অক্টোবর মহালয়া অর্থ্যাৎ দেবীপক্ষের শুরু হয়েছে। দুর্গা দেবীর আগমন ও প্রস্থানের বাহন নিয়ে এবং তার ফলাফল নিয়ে সনাতন ধর্মাবলম্বীদের মধ্যে বহু প্রথা প্রচলিত আছে। দেবী দুর্গা বা তার পুত্র কন্যাদের নিজস্ব বাহন থাকলেও দূর্গার আগমন ও প্রস্থান বিষয়ে প্রতিবছরই আলাদা আলাদা প্রথার উল্লেখ পাওয়া যায়। আর দেবীর এই বাহন বিষয়ে হিন্দুশাস্ত্র অনুযায়ী মর্তালোকে সারাবছর কেমন যাবে সেটা উল্লেখ করে থাকে। এবছর দেবী দুর্গার আগমন হবে গজে অর্থ্যাৎ ফল হচ্ছে শস্য-শ্যামলা বসুন্ধরা আর দেবী এবার গমন করবেন নৌকায় অর্থ্যাৎ ফল হচ্ছে অতিবর্ষন, বন্যা। দেবীর আগমনকে সামনে রেখে দম ফেলার যেন সময় নেই প্রতিমা শিল্পী ও কারিগরদের। এবছর হাটহাজারী উপজেলার ১১৪ টি পূজা মন্ডপে পূজা উদযাপন করা হবে বলে জানা গেছে। ইতিমধ্যে পূজা উদযাপনে সনাতন ধর্মাবলম্বী মানুষেরা বিভিন্ন আয়োজন সম্পন্ন করছে। প্রতিমা শিল্পীরা জানান, সময় যেহেতু আর নেই তাই সকাল থেকে রাত পর্যন্ত অবিরাম কাজ করে চলেছেন তারা। তাছাড়া নিখূঁত মূর্তি তৈরীতে করণীয় সব রকম উপকরন ব্যবহার করা হচ্ছে। দুর্গাপূজাকে সামনে রেখে প্রতিমার মাটির কাজ শেষে রং তুলির আঁচরে প্রতিমাগুলো জীবন্ত করে তুলছেন তারা। এবছর সরকারভিাবে যেভাবে নির্দেশনা দেয়া আছে সেভাবে পূজা উদযাপনের জন্য হাটহাজারী উপজেলা প্রশাসন ও থানা প্রশাসনের পক্ষ থেকে পৃথক পৃথক ভাবে মন্দির কমিটির নেতৃবৃন্দকে নির্দেশনা দেয়া হয়েছে।
এ দিকে সোমবার (২৬ সেপ্টেম্বর)  সকাল ১০ টায় শারদীয় দুর্গাপূজা যথাযথ ভাবে উদযাপনের লক্ষ্যে  প্রস্তুতিমূলক সভা হাটহাজারী উপজেলার প্রশাসনের আয়োজনে উপজেলা পরিষদ হল রুমে উপজেলা নির্বাহী অফিসার মোঃ শাহিদুল আলম এর সভাপতিত্বে  অনুষ্ঠিত হয়
এই সময় উপজেলা সহঃ কমিশনার ভূমি আবু রায়হান, হাটহাজারী মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা ( ওসি) রুহুল আমিন সবুজ, উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান নুরুল আলম বাসেকসহ আরোও অনেকে।