স্বার্থসিদ্ধির জন্য কিছু মানুষ ধর্মকে রাজনীতি হিসেবে ব্যবহার করছে-ব্যারিস্টার বিপ্লব বড়ুয়া

জাহাঙ্গীর আলম চট্টগ্রাম
প্রধানমন্ত্রীর বিশেষ সহকারী ও কেন্দ্রীয় আওয়ামী লীগের দপ্তর সম্পাদক ব্যারিস্টার বিপ্লব বড়ুয়া বলেছেন, স্বার্থসিদ্ধির জন্য কিছু মানুষ ধর্মকে রাজনীতি হিসেবে ব্যবহার করছে। জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের কন্যা মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা যখন উন্নয়নের মাধ্যমে বাংলাদেশকে এগিয়ে নিয়ে যাচ্ছেন; তখন ধর্ম নিয়ে বাড়াবাড়ি ও মারামারি করছে একটি গোষ্ঠী।

গতকাল শুক্রবার (২৯ অক্টোবর) সন্ধ্যায় নগরীর পতেঙ্গাস্থ চরপাড়া গোল্ডেন বীচ এলাকার শাক্যমুনি বৌদ্ধ বিহার ও আরডিএনএ ধ্যান কেন্দ্রে কঠিন চীবর দানোৎসবে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন।

প্রধানমন্ত্রীর বিশেষ সহকারী ব্যারিস্টার বিপ্লব বড়ুয়া বলেন, বাংলাদেশ সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতির দেশ। আমাদের সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতি রক্ষা করতে হবে। বাংলাদেশের বহুমাত্রিক সৌন্দর্য যেকোনোভাবে আমাদের রক্ষা করতে হবে। ধর্ম যার যার উৎসব সবার। এ প্রত্যয়কে সামনে রেখে সবাইকে ঐক্যবদ্ধ থেকে হাজার বছর ধরে আমাদের যেই সম্প্রীতি সেটাকে অটুট রাখতে হবে। আমাদের মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা একজন অসাম্প্রদায়িক ও ধার্মিক মানুষ। মানুষের কল্যাণে তিনি প্রতিনিয়ত কাজ করে যাচ্ছেন। বর্তমান প্রধানমন্ত্রীর নেতৃত্বে মুসলিম, হিন্দু, বৌদ্ধ ও খ্রিস্টানদের জন্য সরকার সমান সুযোগ সুবিধার সুযোগ করে দিয়েছে। কেউ চিন্তাও করেনি এই কর্ণফুলীর তলদেশে টার্নেল হবে, শহরে উড়াল সেতু হবে। বাংলাদেশে চলমান উন্নয়নকে ধরে রাখতে হলে বর্তমান আওয়ামী লীগ সরকারকে সবাই সহযোগিতা করুন।

উপসংঘরাজ শাসনপ্রিয় মহাথেরোর সভাপতিত্বে সভার উদ্বোধন করেন শাক্যমুনি বৌদ্ধ বিহার ও আরডিএন ধ্যানকেন্দ্রের অধ্যক্ষ এস লোকজিৎ মহাথের। মুখ্য আলোচক ছিলেন ইউএসটিসির সাবেক উপাচার্য প্রফেসর ডা. প্রভাত চন্দ্র্র বড়ুয়া। আর্শীবাদক ছিলেন রত্নপ্রিয় মহাথের। সভায় স্বাগত বক্তব্য দেন শাক্যমুনি বৌদ্ধ বিহারে চীবরদান উদযাপন কমিটির সভাপতি ডা. ভাগ্যধন বড়ুয়া।

বিশেষ অতিথি ছিলেন বাংলাদেশ বুডিস্ট ফেডারেশনের মহসচিব ভিক্ষু সুনন্দপ্রিয় মহাথের, সাতকানিয়া পৌরসভার মেয়র মো. জোবায়ের, পুলিশ পরিদর্শক (ওসি) রনজিত বড়ুয়া, কেন্দ্রীয় স্বেচ্ছাসেবক লীগের পানিসম্পদ বিষয়ক সম্পাদক রাহুল বড়ুয়া, জন্মাষ্টমী উদযাপন পরিষদ কেন্দ্রীয় কমিটির সভাপতি সুকুমার চৌধুরী, কাউন্সিলর ছালেহ আহমদ চৌধুরী, সংরক্ষিত ওয়ার্ডের কাউন্সিলর শাহানুর বেগম, কাউন্সিলর মো. ইলিয়াস। আরও বক্তব্য রাখেন লোকববংশ থেরো, জয়রত্ন ভিক্ষু, জগতরত্ন ভিক্ষু, ডা. প্রবীর বড়ুয়া, বিশ্বজিত বড়ুয়া, রনি কুমার বড়ুয়া প্রমুখ।