সোনারগাঁও থেকে দেশীয় অস্ত্র ও ককটেলসহ  ৬ ডাকাত গ্রেফতার 

মো. মিঠুন মিয়া(সিদ্ধিরগঞ্জ প্রতিনিধি নারায়ণগঞ্জ): নারায়ণগঞ্জের সোনারগাঁও থেকে দেশীয় অস্ত্র ও ককটেলসহ ডাকাত দলের ৬ সদস্যকে গ্রেপ্তার করেছে র‌্যাব-১১। গ্রেপ্তারকৃতরা হলেন- সোনারগাঁও উপজেলার নানাকি মধ্যপাড়া এলাকার বাবুল হোসেনের ছেলে আজিজুল ইসলাম (১৮) ও মো. দায়েনের ছেলে মো. হৃদয় (১৮), বন্দরের শারে সরকার চাপাতলী এলাকার মো. শফিকুল ইসলামের ছেলে সাইফুল ইসলাম (২০), ইটেরপুল এলাকার মো. দেলোয়ার হোসেনের ছেলে তালিফ হোসেন (২৩), হরিপুর সিঁড়ি ব্রিজ এলাকার মো. ইব্রাহিমের ছেলে মো. রাজু আহম্মেদ (২২) এবং সোনারগাঁয়ের নয়াপাড়া এলাকার মো. ইব্রাহিমের ছেলে মো. ফারুক (১৯)।

এসময় তাদের হেফাজত হতে ডাকাতির কাজে ব্যবহৃত ৩টি ককটেল, ২টি চাইনিজ কুড়াল, ১টি চাপাতি, ২টি ছোড়া, ২টি লোহার রড, ৬টি টর্চ লাইট ও ২টি লোহার পাইপ উদ্ধার করা হয়। এছাড়াও অধ্যাপক মাহবুব আলম এর নিকট হতে ডাকাতিকৃত তার ব্যবহৃত ১টি মোবাইল ফোনও উদ্ধার করা হয়।

সোমবার (১৬ মে) দুপুরে সিদ্ধিরগঞ্জের আদমজীতে র‌্যাব-১১ এর সদর দপ্তরে এক সংবাদ সম্মেলনে এসব তথ্য জানানো হয়।

এর আগে রোববার দিনগত রাতে ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়কের সোনাখালী এলাকায় থেকে তাদের গ্রেপ্তার করা হয়।

সংবাদ সম্মেলনে র‌্যাব-১১ এর উপ-অধিনায়ক হাসান শাহরিয়ার জানান, চক্রটি গত ১ এপ্রিল গভীর রাতে গাজীপুরের ইসলামিক ইউনিভার্সিটি অব টেকনোলজির কম্পিউটার বিজ্ঞান ও প্রকৌশল বিভাগের অধ্যাপক মাহবুব আলম স্বপরিবারে ছুটি কাটাতে গভীর রাতে নিজ গাড়িতে স্ত্রী ও তিন সন্তানকে সঙ্গে নিয়ে ছুটি কাটানোর উদ্দেশ্যে কক্সবাজার রওনা দেন। যাত্রাপথে গাড়িটি ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়কের সোনারগাঁওয়ের মোগড়াপাড়া বাসস্ট্যান্ডের ২-৩ কিলোমিটার আগে মল্লিকপাড়া এলাকায় পৌঁছালে রাত পৌনে ৪ টার দিকে হঠাৎ ১০-১২ টি গাছের মোটা ডাল রাস্তায় ফেলে ব্যারিকেডের সৃষ্টি করে এবং গাড়িটি থামার সঙ্গে সঙ্গে চারদিক থেকে দেশীয় অস্ত্রশস্ত্রে সজ্জিত হয়ে ১০-১১ জনের একটি ডাকাত দল তাদেরকে ঘিরে ধরে। এ অবস্থায় ডাকাতরা তাঁর স্ত্রীর স্বর্ণালঙ্কার, ভ্যানিটি ব্যাগ, মানিব্যাগ, তিনটি মোবাইল ফোনসেট ও বাচ্চাদের ছোট তিনটি ব্যাগ ছিনিয়ে নিয়ে অস্ত্র প্রদর্শন করে ভয়ভীতি দেখিয়ে মোটরসাইকেলে করে পালিয়ে যায়।

গ্রেপ্তারকৃতদের বিরুদ্ধে সংশ্লিষ্ট থানা আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হয়েছে বলে জানিয়েছেন র‌্যাবের এই কর্মকর্তা।