সিরাজদিখানে গলায় ফাঁস লাগিয়ে গৃহবধূর আত্নহত্যা!

আমার সময় প্রতিবেদক: মুন্সিগঞ্জের সিরাজদিখানে গলায় ফাঁস লাগিয়ে লাকী  আক্তার (৩২) নামে এক গৃহবধূ আত্নহত্যা করেছে। সোমবার সন্ধ্যা সাড়ে ৭ টার দিকে উপজেলার মধ্যপাড়া ইউনিয়নের ধামালিয়া গ্রামে এ ঘটনা ঘটে। সে ধামালিয়া গ্রামের প্রবাসী মো. ফারুকের স্ত্রী ও বয়রাগাদী ইউনিয়নের ভূঁইরা গ্রামের মো. আব্বাস আলীর মেয়ে। খবর পেয়ে পুলিশ ওই গৃহবধূর লাশ উদ্ধার করে ময়না তদন্তের জন্য মুন্সীগঞ্জ জেনারেল হাসপাতালে পাঠিয়েছে। মৃত লাকী আক্তারের ৬ বছরের টি কন্যা সন্তান রয়েছে।

স্থানীয়রা জানায়, লাকী আক্তারের সাথে মাঝে মধ্যে তার স্বামী মো. ফারুকের সাথে মোবাইলে  বিভিন্ন বিষয় নিয়ে মাঝে মধ্যে কথা কাটাকাটি হতো। এরই জেরে সোমবার সন্ধ্যায় স্বামীর বসত ঘরের আড়ার সাথে গলায় ফাঁস দিয়ে আত্মহত্যা করে।

মৃত লাকী আক্তারের পিতা মো. আব্বাস আলী বলেন, মেয়ের লাশ নিয়ে যাচ্ছি। আর এই বিষয়ে কোনো কথা বলতে রাজি না বলে ফোন কেটে দেন।

সিরাজদীখান থানার ওসি মোহাম্মদ বোরহান উদ্দিন বলেন, খবর পেয়ে গৃহবধূর লাশ উদ্ধার করে ময়না তদন্তের জন্য মুন্সীগঞ্জ জেনারেল হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। নিহতের স্বজনরা কেউ কোনো অভিযোগ করেনি। তারপরও খতিয়ে দেখার জন্যই ময়না তদন্ত করছি এবং একটি অপমৃত্যুর মামলা হয়েছে।