সম্প্রীতি বজায় রাখতে জনপ্রতিনিধির সাথে ভাচ্যুয়াল সভা: মোঃ তাজুল ইসলাম

মোঃ আল মামুন,জেলা প্রতিনিধি,ব্রাহ্মণবাড়িয়া:  সম্প্রতি দেশের বিভিন্ন এলাকায় ধর্মীয় সম্প্রীতি বিনষ্ট এবং জনগনের মধ্যে বিরোধ সৃষ্টির জন্য কিছু মহলের অপতৎপরতা নির্মুলে জনগনের কল্যানের জন্য তথা ধর্ম-বর্ণ নির্বিশেষে সকলের মধ্যে সম্প্রীতি বজায় রাখার জন্য স্থানীয় সরকারের নির্বাচিত জনপ্রতিনিধিদের গুরুত্ব দায়িত্ব পালনে ইউনিয়ন পরিষদ, উপজেলা,জেলা পরিষদ, পৌরসভা ও সিটি কর্পোরেশনের নির্বাচিত জনপ্রতিনিধিগণ নিজ নিজ অবস্থান থেকে স্বীয় দায়িত্ব পালন করে দূর্বৃত্তদের প্রতিহত করার, তথা জনপ্রতিনিধিদের পরামর্শ গ্রহণপুর্বক প্রয়োজনীয় নির্দেশনামুলক স্থানীয় সরকার , পল্লী উন্নয়ন ও সমবায় মন্ত্রণালয় স্থানীয় বিভাগ মন্ত্রী মোঃ তাজুল ইসলাম এর সাথে গত সোমবার( ২৪ অক্টোবর) সারা দেশসহ ব্রাহ্মনবাড়িয়া জেলা প্রশাসক সম্মেলন কক্ষে ব্রাহ্মণবাড়িয়া জনপ্রতিনিধিদের ভার্চ্যুয়ালী সভা অনুষ্ঠিত হয়।

ভার্চ্যুয়ালী সভায় অংশ গ্রহণ করেন ব্রাহ্মনবাড়িয়া জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান বীর মুক্তিযোদ্ধা জননেতা আলহাজ্ব শফিকুল আলম এম.এসসি, জেলা পরিষদ প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা মোঃ আমিনুুল ইসলাম, জেলা প্রশাসক কার্যালয়ের স্থানীয় সরকার শাখার উপ-পরিচালক মোঃ মাইন উদ্দিন, ব্রাহ্মণবাড়িয়া পৌরসভার মেয়র মিসেস নায়ার কবির, সদর উপজেলা চেয়ারম্যান লায়ন ফিরোজুর রহমান ওলিও, আশুগঞ্জ উপজেলা চেয়ারম্যান হানিফ মুন্সী, নাসিরনগর উপজেলা চেয়ারম্যান রাফি উদ্দিন, নবীনগর উপজেলা চেয়ারম্যান নাছিমা মুকাইল, কসবা উপজেলা চেয়ারম্যান এডঃ রাশেদুল কবির কাউছার, নবীনগর উপজেলা চেয়ারম্যান মোঃ মনিরুজ্জামান, নবীনগর পৌর মেয়র এডঃ শিব শংকর দাস, আখাউড়া পৌর মেয়র তাকজিল খলিফা কাজল, কসবা পৌর মেয়র, জেলা পরিষদ সদস্য মোঃ জহিরুল ইসলাম ভুইয়া, বোরহান উদ্দিন নসু, আইয়ূব আলী ভ‚ইয়া, আসাদুজ্জামান, কবির আহমেদ, সৈয়দা নাখলো আক্তার, সনি আক্তার সূচী, শাহীন আক্তার, স্বপ্না বেগম, নুরুন্নাহার বেগম, জেলা পরিষদ সহকারী প্রকৌশলী মোঃ আব্দুল হামিদ, প্রশাসনিক কর্মকর্তা রতীশ চন্দ্র রায়, উপজেলা ও ইউনিয়ন পর্যায়ের জনপ্রতিনিধিগন।