সপ্তম ধাপে (ইউপি) নির্বাচনে সাতকানিয়ায় ভোটের আগে স্থানীয়দের হাতে অস্ত্রসহ যুবলীগ নেতা আটক

জাহাঙ্গীর আলম ব্যুরো প্রধান চট্টগ্রাম: চট্টগ্রামের সাতকানিয়ায় ইউনিয়ন পরিষদ (ইউপি) নির্বাচনের আগের রাতে আগ্নেয়াস্ত্রসহ স্থানীয়দের হাতে আটক হয়েছেন এক যুবলীগ নেতা। তার নাম- পার্থ সারথী চৌধুরী। তিনি দক্ষিণ জেলা যুবলীগের সাধারণ সম্পাদক।

রোববার (৬ ফেব্রুয়ারি) রাত ১২টার দিকে উপজেলার খাগরিয়া ইউনিয়নের ৬ নম্বর ওয়ার্ড এলাকায় একটি অটোরিকশা থেকে তাকে আটক করা হয়। তার সঙ্গে আটক করা হয়েছে আরও চারজনকে।

স্থানীয়রা জানান, রাতে অটোরিকশাযোগে বহিরাগত কয়েকজন সন্দেহজনকভাবে ঘুরাফেরা করতে দেখে আটক করা হয়। এরপর তাদের তল্লাশি করে পাওয়া যায় একটি আগ্নেয়াস্ত্র। পরে ওই ইউনিয়নের স্বতন্ত্র চেয়ারম্যান প্রার্থী জসিম উদ্দিন এসে তাদের উদ্ধার করে নিজ বাড়িতে নিয়ে যান।

জানতে চাইলে চেয়ারম্যান প্রার্থী জসিম উদ্দিন জাগো নিউজকে বলেন, নৌকা প্রতীকের চেয়ারম্যান প্রার্থী আকতার হোসেনের পক্ষে কাজ করার জন্য অস্ত্রসহ তারা এসেছিলেন। স্থানীয়রা তাদের আটক করে মারধর করার চেষ্টা করেছিল। পরে আমি তাদের নিয়ে পুলিশে সোপর্দ করি।

এ বিষয়ে জানতে নৌকা প্রতীকের প্রার্থী আকতার হোসেনকে একাধিকবার ফোন করা হলেও তিনি রিসিভ করেননি।

চট্টগ্রাম জেলার অতিরিক্ত পুলিশ সুপার সদর সুজন চন্দ্র সরকার বলেন, খাগরিয়া এলাকায় কয়েকজন বহিরাগত আটক হওয়ার খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে একটি ফোর্স পাঠানো হয়েছে। তাদের পরিচয় জানা যায়নি।

সোমবার (৭ ফেব্রুয়ারি) সাতকানিয়া উপজেলার ছদাহা, পুরানগড়, বাজালিয়া, ধর্মপুর, কালিয়াইশ, কেঁওচিয়া, ঢেমশা, মাদার্শা, আমিলাইশ, কাঞ্চনা, নলুয়া, খাগরিয়া, চরতি, পশ্চিম ঢেমশা সোনাকানিয়া ও সদর ইউনিয়নে নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে।