শ্রীপুরে প্রতিবন্ধী দম্পতিকে মারধর থানায় অভিযোগ

গাজীপুর প্রতিনিধি: গাজীপুরের শ্রীপুরে গৃহবধূকে কুপ্রস্তাব দেওয়ার প্রতিবাদ করায় স্বামীসহ ওই গৃহবধূকে মারধর করার অভিযোগ উঠেছে ইউনিয়ন আ’লীগ নেতার বিরুদ্ধে। গৃহবধূ মাঝারি আকারের বাক প্রতিবন্ধী হওয়ায় ওই দম্পতিকে মারধর করে  স্থানীয় ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের সদস্য। উপজেলার মাওনা ইউনিয়নের পাথার পাড়া এলাকায় গত বুধবার ১০ ফেব্রæয়ারি ২০২২২ খ্রিষ্টাব্দে এ ঘটনা ঘটে। ওই এলাকার ভাড়াটিয়া আলী হোসেনের প্রতিবন্ধী স্ত্রী মুক্তা (২০) শ্রীপুর থানায় বাদী হয়ে পাথার পাড়া এলাকার কফিল উদ্দিনের ছেলে মনির হোসেন, জাহাঙ্গীর ও শিরীন আক্তারের নামে লিখিত অভিযোগ দায়ের করেছেন। স্থানীয় ও ভিকটিম সুত্রে জানাযায়, কুপ্রস্তাবকারী মনির হোসেনের ভাড়াটিয়া আবুল হোসেন প্রতিবন্ধী স্ত্রী‘কে কুপ্রস্তাব ও অশ্লীল কথাবার্তা বলে। পরে ওই নারী তার বাসায় গিয়ে স্বামীকে জানালে তার স্বামী প্রতিবাদ করেন। একপর্যায়ে দুইজনের মধ্যে হাতাহাতির ঘটনা ঘটে। মনির হোসেন ওই দম্পতিকে বাসা থেকে ডেকে এনে মারধর করা করেছে বলে অভিযোগ করেন। এছাড়াও মনির হোসেন স্থানীয় মাওনা ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের সদস্য ও প্রভাবশালী হওয়ায় সুবিচার পাচ্ছেন না বলেও জানান ভোক্তভোগী পরিবার। প্রতিবন্ধী নারী ও তার স্বামীকে এভাবে মারধরের ঘটনায় নিন্দা জানিয়েছেন সমাজের সচেতন মহল। অভিযুক্ত বাড়িওয়ালা মনির হোসেন বলেন, আমি প্রতিবন্ধীর স্বামীকে মারধর করেছি, তবে প্রতিবন্ধী নারীকে মারধর করিনি। নির্যাতনের পর ওই নারী শ্রীপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে চিকিৎসা নিয়ে বাড়ি ফিরলেও শারীরিক অবস্থার উন্নতি হয়নি। শ্রীপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) খোন্দকার ইমাম হোসেন জানান, লিখিত অভিযোগ পাওয়া গেছে তদন্তপূর্বক আইনানুগ ব্যবস্থা নেওয়া হবে।