শিবগঞ্জে  ১৩ টি ইউনিয়ন পরিষদের ফলাফল 

আব্দুল্লাহ আল মামুন, চাঁপাইনবাবগঞ্জ: তৃতীয় ধাপে অনুষ্ঠিতব্য চাঁপাইনবাবগঞ্জের শিবগঞ্জ উপজেলার ১৩ ইউনিয়নের চেয়ারম্যান পদের নির্বাচনে ৮টিতে আওয়ামী লীগ,  অন্য পাঁচটিতে ৫ জন সতন্ত্র প্রার্থী বেসরকারিভাবে জয়ী হয়েছেন। ১৩টি ইউনিয়নের মধ্যে নয়ালাভাঙা ও মনাকষা ইউনিয়নে আগেই নৌকা প্রতীকের প্রার্থী বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় নির্বাচিত হয়েছেন।

রোববার রাতে উপজেলা নির্বাচন কর্মকর্তা তাসিনুর রহমানসহ সংশ্লিষ্ট রিটার্নিং কর্মকর্তারা এই ফলাফল ঘোষণা করেন। শাহাবাজপুর ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে নৌকা প্রতীকের প্রার্থী নিজামুল হক রানা ১৭ হাজার ৯১৭ ভোট পেয়ে বেসরকারিভাবে চেয়ারম্যান নির্বাচিত হয়েছেন। তাঁর নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী সতন্ত্র  প্রার্থী তোজাম্মেল হক পেয়েছেন ৯ হাজার ৪৯২ ভোট।

দাইপুখুরিয়া ইউনিয়নে নৌকার প্রার্থী আলোমগীর রেজা ৮ হাজার ৪৫৬ ভোট পেয়ে বেসরকারিভাবে নির্বাচিত হয়েছেন। তাঁর নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী সতন্ত্র প্রার্থী আশরাফুল আলম পেয়েছেন ৭ হাজার ৫৯৭ ভোট। চককীর্তি ইউনিয়নে নৌকার প্রার্থী আনোয়ার হাসান আনু মিঞা ১০ হাজার ৭৭৭ ভোট পেয়ে বেসরকারিভাবে নির্বাচিত হয়েছেন।

তাঁর নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী সতন্ত্র প্রার্থী হামিদুজ্জামান পেয়েছেন ৭ হাজার ৬২৭ ভোট। ঘোড়াপাখিয়া ইউনিয়নে নৌকার প্রার্থী মামুন অর রশিদ মমিন ১০ হাজার ১১৬ ভোট পেয়ে বেসরকারিভাবে নির্বাচিত হয়েছেন। তাঁর নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী আওয়ামী লীগ বিদ্রোহী সতন্ত্র আখতার বারী পেয়েছেন ১ হাজার ৩৭৪ ভোট। ছত্রাজিতপুরে নৌকার প্রার্থী গোলাম রব্বানী ছবি ৬ হাজার ৯৭৫ ভোট পেয়ে বেসরকারিভাবে নির্বাচিত হয়েছেন।

উজিরপুরে নৌকার প্রার্থী দুরুল হোদা ৪ হাজার ৩৬৯ ভোট পেয়ে বেসরকারিভাবে নির্বাচিত হয়েছেন। তাঁর নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী আওয়ামী লীগ বিদ্রোহী সতন্ত্র প্রার্থী ফয়েজ উদ্দিন ৩ হাজার ৩৭ ভোট। মনাকষা ও নয়ালাভাঙায় একক প্রার্থী থাকায় বিনা প্রতিদ্বন্দ্বী নির্বাচিত হয়েছেন। মির্জা শাহাদাৎ হোসেন খুররম এবং মোস্তাকুল ইসলাম পিন্টু।

বিনোদপুরে আওয়ামী লীগের বিদ্রোহী সতন্ত্র প্রার্থী রুহুল আমিন ৯ হাজার ৭৪০ ভোট পেয়ে বেসরকারিভাবে নির্বাচিত হয়েছেন। তাঁর নিকতম প্রতিদ্বন্দ্বী নৌকার প্রার্থী খাইরুল ইসলাম পেয়েছেন ৭ হাজার ৬২৫ ভোট। মোবারকপুরে সতন্ত্র প্রার্থী মাহমুদ মিঞা ১০ হাজার ৩১০ ভোট পেয়ে নির্বাচিত হয়েছেন। নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী নৌকার প্রার্থী কামাল উদ্দিন পেয়েছেন ৯ হাজার ২৮৭ ভোট।

পাঁকায় সতন্ত্র প্রার্থী আবদুল মালেক ৬ হাজার  ৬৩ ভোট পেয়ে নির্বাচিত হয়েছেন। তাঁর নিতটতম প্রতিদ্বন্দ্বী জালাল উদ্দিন পেয়েছেন ৩ হাজার ৫৫৪ ভোট। এদিকে শ্যামপুরে সতন্ত্র রবিউল ইসলাম ১২ হাজার ২৫৯ ভোট পেয়ে নির্বাচিত হয়েছেন।  নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী নৌকার প্রার্থী আসাদুজ্জামান ভোদন পেয়েছেন ৯ হাজার ৩২৭ ভোট।

এছাড়া ধাইনগরে আবদুল লতিফ ৮ হাজার ৮৩৭ ভোট পেয়ে চেয়ারম্যান নির্বাচিত হয়েছেন। তাঁর  নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী এতে আসগর  পেয়েছেন ৭৬৫২ ভোট।