লোহাগাড়ায় অনুষ্ঠিতব্য ৬ ইউপি নির্বাচনে আচরণ বিধি নিশ্চিত করতে মাঠে নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট

মো. এরশাদ আলম, লোহাগাড়া (চট্টগ্রাম): ৪র্থ ধাপে অনুষ্ঠিতব্য লোহাগাড়ার ছয় ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনকে অবাধ,সুষ্ঠভাবে সম্পন্ন করতে এবং আচরণবিধি নিশ্চিত করতে সাধারণ মানুষ যাতে তাদের ভোটাধিকার প্রয়োগ করতে পারে সেই লক্ষ্যে কঠোর অবস্থানে রয়েছে লোহাগাড়া উপজেলা প্রশাসন।
রবিবার (১৯ ডিসেম্বর) বিকেল থেকে নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট ও উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) মোঃ মাসুদ রানার নেতৃত্বে একটি টিম পদুয়া এবং চরম্বা ইউনিয়নের বিভিন্ন এলাকায় অভিযান পরিচালনা করা হয়।এসময় মোটর সাইকেল এবং সিএনজিতে আচরণবিধি অমান্য করে পোস্টার লাগানোর দায়ে ভ্রাম্যমাণ আদালতের মাধ্যমে ৫জনকে ২হাজার ৫০০টাকা জরিমানা আদায় করা হয়।
এসময় তিনি এলাকার সাধারণ ভোটারদের সাথে কথা বলেন। সাধারণ মানুষকে তিনি আশ্বস্হ করেন নির্ভয়ে ভোট কেন্দ্রে গিয়ে ভোটাররা ভোট প্রয়োগ করতে পারবেন।  আচারণ বিধি অমান্য করে দেওয়াল লাগানো প্রার্থীদের পোস্টারগুলো ছিড়ে দেওয়া হয়।
অভিযানে সাথে ছিলেন লোহাগাড়া থানার এসআই রুহুল আমিন, উপজেলা ভূমি অফিসের নাজির সমির চৌধুরী সহ থানা পুলিশের সদস্যবৃন্দ।
নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট ও উপজেলা সহকারী কমিশনার(ভূমি) মোঃ মাসুদ রানা জানান, আগামী ২৬ ডিসেম্বর পদুয়া,চরম্বা,চুনতি, বড়হাতিয়া,কলাউজান ও পুটিবিলা ইউপির নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে। অবাধ, সুষ্ঠুভাবে নির্বাচন সম্পন্ন করতে আমাদেরকে নির্দেশনা দেওয়া হয়েছে। নির্বাচনকে সামনে রেখে আচরনবিধি নিশ্চিত করতে বিভিন্ন এলাকায় অভিযান পরিচালনা করা হচ্ছে। বিভিন্ন এলাকায় আচরণবিধি অমান্য করায় দেওয়ালে লাগানে পোস্টারগুলো ছিড়ে দেয়া হয় এবং ভ্রাম্যমাণ আদালতের মাধ্যমে সিএনজি ও মোটর সাইকেলে পোস্টার লাগানোর দায়ে ৫জনকে ২হাজার ৫০০ টাকা জরিমানা করা হয়েছে। কোন এলাকায় প্রভাববিস্তার করা যাবেনা।অভিযানকালে সাধারণ মানুষের সাথে কথা বলেছি। নির্বাচনকে ঘিরে কোন ধরণের অপ্রীতিকর ঘটনা ঘটালে কঠোরভাবে ব্যবস্হা নেওয়া হবে বলেও তিনি জানান।