রাজশাহীতে নাশকতা পরিকল্পনার অভিযোগে জামায়াত-শিবিরের ১৫ কর্মী আটক

মোঃ আল আমিন হোসেন, রাজশাহী: রাজশাহী মহানগরীতে সন্ত্রাসী কার্যক্রম সংঘটনের লক্ষে ষড়যন্ত্র করাকালে ১৫ জন জামায়াত ও শিবিরকর্মীকে আটক করেছে আরএমপি’র বোয়ালিয়া মডেল থানা পুলিশ। এসময় আসামীদের কাছ থেকে জিহাদী বই, টাকা আদায়ের রশিদ, মাসিক রিপোর্ট ও রেজিস্টার পত্র উদ্ধার হয়।

আটকৃতরা হলেন মোঃ রবিউল ইসলাম (২৯), হাফেজ আঃ আজিজ (৩৭), হাফেজ মোঃ খলিলুর রহমান (৩১), মোঃ রবিউল ইসলাম (৪০), মোঃ কুদ্দুসুর রহমান (৪৫), মোঃ শফিকুল ইসলাম (৪৫), মোঃ আতিকুর রহমান (৪৬), মোঃ আব্দুল মালেক (৬৬), নাফিজ ইমতিয়াজ মনন (১৯), দিসান ইফতে নাবিল (২০), হাফেজ মোঃ দেলেয়ার হোসেন (৫৫), মোঃ আঃ আজিজ (৩৬), মোঃ বাকী বিল্লাহ বায়োজিদ (৪৫), হাফেজ মোঃ রবিউল ইসলাম (৪৪) ও হাফেজ খিজির আহম্মেদ (৩৬)।

গতকাল (৯ জানুয়ারি) বোয়ালিয়া মডেল থানার অফিসার ইনচার্জ নিবারন চন্দ্র বর্মন পিপিএিম, এসআই মোঃ আবু হায়দার ও তার টিম বিশেষ অভিযান পরিচালনা করছিলো। এসময় গোপন সংবাদের ভিত্তিতে বোয়ালিয়া মডেল থানা পুলিশের ঐ টিম জানতে পারে, সোনাদিঘীর মোড়ে মাজেদা হোটেল এন্ড রেস্টুরেন্টের ভিতরে সরকারী বিরোধী অপপ্রচার এবং নাশকতার পরিকল্পনার উদ্দেশ্যে কতিপয় জামায়াত-শিবিরের সদস্য সমবেত হয়েছে। এমন সংবাদের ভিত্তিতে বোয়ালিয়া মডেল থানা পুলিশ রাত্রী ৯ টায় অভিযান পরিচালনা করে আসামীদের আটক করে। এসময় পুলিশের উপস্থিতি টের পেয়ে অন্যরা পালিয়ে যায়।

গ্রেফতারকৃত আসামীরা জিজ্ঞাসাবাদে জানায়, রাজশাহী মহানগরীর বিভিন্ন স্থানে সন্ত্রাসী কার্যক্রম পরিচালনা করার জন্য এই গোপন বৈঠকে তারা মিলিত হয়েছিল।

পলাতক আসামীদের গ্রেফতারে অভিযান অব্যাহত রয়েছে এবং গ্রেফতারকৃত আসামীদের বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণ করা হয়েছে।