মাদক কারবারীদের কোন প্রকার ছাড় নেই: উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান জিয়াউল হক চৌধুরী বাবুল 

মো. এরশাদ আলম, লোহাগাড়া (চট্টগ্রাম): চট্টগ্রামের লোহাগাড়া উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান জিয়াউল হক চৌধুরী বাবুল বলেছেন, মাদকের সাথে কোনো ধরণের আপোষ হবে না। বাংলাদেশে বর্তমানে মাদক ক্যান্সারের মতো রূপ নিয়েছে। কোন মানুষ  ক্যান্সার আক্রান্ত হলে শুধু একজন মানুষেরই ক্ষতি হয়। কিন্তু একজন মাদকাসক্ত হলে পুরো সমাজের ক্ষতি হয়। একজন মাদক সেবনকারী এবং মাদক ব্যবসায়ী পুরো সমাজকে ধ্বংস করে দেয়। তাই এ ব্যাধী থেকে দেশকে মুক্ত করার জন্য আইন-শৃঙ্খলা বাহিনী নয়; সব মানুষকে দায়িত্ব পালন করতে হবে। আইন-শৃঙ্খলা বাহিনীকে তথ্য দিয়ে সহায়তাসহ সমাজের তৃণমূল পর্যন্ত মাদক বিস্তার রোধে জনসচেতনতা তৈরি করতে হবে।মাদকের সাথে সংশ্লিষ্ট কাউকে ছাড় দেয়া হবে না। তিনি আরও বলেন, বটতলী স্টেশনে যানজটমুক্ত করতে সকলকে সচেতন হতে হবে। সিএনজি ও অটো-রিক্সা কারা নিয়ন্ত্রণ করে তাদেরকে খুঁজে বের করতে হবে।
বৃহস্পতিবার (৩০ ডিসেম্বর) সকালে লোহাগাড়া উপজেলা প্রশাসনের আয়োজনে  উপজেলা পরিষদ সভাকক্ষে উপজেলা আইন শৃঙ্খলা বিষয়ক সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি উপরোক্ত কথাগুলো তুলে ধরেন।
সভায় সভাপতিত্ব করেন লোহাগাড়া উপজেলা নির্বাহী অফিসার(ইউএনও) মুহাম্মদ আহসান হাবীব জিতু।
সভায় অন্যান্যদের মধ্যে বক্তব্য রাখেন  উপজেলা পরিষদ ভাইস চেয়ারম্যান এম ইব্রাহীম কবির, মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান  জেসমিন আকতার, লোহাগাড়া থানার পুলিশ পরিদর্শক(তদন্ত) মুহাম্মদ ওবায়দুল ইসলাম,উপজেলা স্বাস্হ্য কমপ্লেক্সের আরএমও ডাঃ কেএম আবদুল্লাহ আল মামুন, উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা মুহাম্মদ মনিরুল ইসলাম মানিক,পদুয়া বনরেঞ্জ কর্মকর্তা মুহাম্মদ সাইফুল ইসলাম,উপজেলা সমাজসেবা অফিসার মুহাম্মদ দেলোয়ার হোসাইন,উপজেলা প্রকল্প বাস্তবায়ন কর্মকর্তা(পিআইও) মুহাম্মদ মাহবুব আলম শাওন ভুঁইয়া, আওয়ামীলীগ নেতা এইচ এম গনি সম্রাট, লোহাগাড়া সদর ইউপি চেয়ারম্যান আলহাজ্ব নুরুচ্ছাফা চৌধুরী, উপজেলা মুক্তিযোদ্ধা ডেপুটি কমান্ডার মুহাম্মদ আবদুল হামিদ বেঙ্গল, আধুনগর ইউপি চেয়ারম্যান মুহাম্মদ নাজিম উদ্দিন, কলাউজান ইউপির চেয়ারম্যান আলহাজ্ব এম.এ ওয়াহেদ, আমিরাবাদ ইউপি চেয়ারম্যান এসএম ইউনুচ, লোহাগাড়া প্রেস ক্লাব দপ্তর সম্পাদক মুহাম্মদ রায়হান সিকদার।
সভায় উপজেলার বিভিন্ন দপ্তরের কর্মকর্তারা, সাংবাদিক, জনপ্রতিনিধিসহ অন্যান্যরা উপস্হিত ছিলেন।