ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় বিশ্ব হাত ধোঁয়া দিবস উদযাপিত

মোঃ আল মামুন,জেলা প্রতিনিধি, ব্রাহ্মণবাড়িয়া। ‘উন্নত স্যানিটেশন নিশ্চিত করি, করোনা ভাইরাস মুক্ত জীবন গড়ি’ প্রতিবাদ্যে স্যানিটেশন মাস এবং “Our Future is at Hand -Let’s Move Forward Together” অর্থাৎ ‘আমাদের হাতে আমাদের ভবিষ্যৎ, চলো একসঙ্গে এগিয়ে যাই’ বিশ্ব হাত ধোঁয়া দিবস ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় পালিত হয়েছে। রবিবার(১৭ অক্টোবর) ব্রাহ্মণবাড়িয়ার সরকারি শিশু পরিবার তিতাস পাড়া এলাকায় এক আলোচনা সভার আয়োজন করে জেলা জনস্বাস্থ্য প্রকৌশল অধিদপ্তর। এতে প্রধান অতিথি ছিলেন ব্রাহ্মণবাড়িয়ার জেলা প্রশাসক হায়াত উদ-দৌলা খাঁন৷

জেলা জনস্বাস্থ্য প্রকৌশল অধিদপ্তরের নির্বাহী প্রকৌশলী মাহবুবুর রহমানের সভাপতিত্বে এতে বিশেষ অতিথি ছিলেন, অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক সার্বিক রুহুল আমীন,অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মোল্লা মুহাম্মদ শাহীন,সিভিল সার্জন মোহাম্মদ একরাম উল্লাহ,সমাজ সেবা কার্যালয়ের সহকারী পরিচালক ফরহাদ হোসেন দিপু ও শিশু পরিবার উপতত্ত্বাবধায়ক রওশন আরা প্রমূখ। সভায় বক্তারা বলেন, বিশ্ব হাত ধোয়া দিবসটি বিশ্বব্যাপী জনসচেতনতা তৈরি ও উদ্বুদ্ধকরণের জন্য চালানো একটি প্রচারণামূলক দিবস। সাধারণ মানুষের মধ্যে সাবান দিয়ে হাত ধোয়ার মাধ্যমে রোগের বিস্তার রোধ করার বিষয়ে সচেতনতা তৈরি করার উদ্দেশ্যে এ দিবসটি পালিত হয়ে থাকে। এই দিবসের মূল লক্ষ্য হলো, সমাজে সকলের মধ্যে সাবান দিয়ে হাত ধোয়ার একটি সাধারণ সংস্কৃতির সমর্থন, প্রচলন ও এর উপকারিতা সম্পর্কে সচেতনতা বৃদ্ধি করা। বর্তমানে করোনা পরিস্থিতিতে এ দিবসটির গুরুত্ব বেড়েছে। কারণ করোনা থেকে নিজেকে রক্ষায় বারবার হাত ধোয়া অত্যন্ত জরুরি। অবচেতনভাবে আমরা হাত দিয়ে ক্রমাগত চোখ, নাক ও মুখ স্পর্শ করে থাকি।

হাত অপরিষ্কার থাকলে এমন স্পর্শের মাধ্যমে দেহের ভেতর জীবাণু প্রবেশ করতে পারে। তাই কিছু সময় পরপর সাবান-পানিতে হাত ধুয়ে নিলে করোনাভাইরাসে সংক্রমণের আশঙ্কাসহ নানা ধরনের রোগব্যাধি অনেকটাই কমিয়ে আনা সম্ভব হবে।