বিশ্বনাথে দুই ইউপিতে প্রতিক পেলেন ১২৭ প্রার্থী, চেয়ারম্যান ৯, মেম্বার ৯৩ ও মহিলা মেম্বার ২৫

ফারুক আহমদ, বিশ্বনাথ সিলেট: সিলেটের বিশ্বনাথ উপজেলার লামাকাজী ও খাজাঞ্চী ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে চেয়ারম্যান, সাধারণ সদস্য (মেম্বার) ও সংরক্ষিত ওয়ার্ডের মহিলা সদস্য (মহিলা মেম্বার) পদে প্রতিদ্বন্দিতা করার লক্ষে গত ৩ জানুয়ারী মনোনয়নপত্র দাখিলকারী ১৩২ জন প্রার্থীর মধ্যে শুক্রবার (১৪ জানুয়ারী) বৈধ ১২৭ জন প্রার্থীর মধ্যে প্রতিক বরাদ্ধ করা হয়েছে। দুই ইউনিয়নে চেয়ারম্যান পদে ৯ জন, সাধারণ সদস্য (মেম্বার) পদে ৯৩ জন ও সংরক্ষিত ওয়ার্ডের মহিলা সদস্য (মহিলা মেম্বার) পদে ২৫ জন প্রার্থী নিজেদের পছন্দের প্রতিক পেয়েছেন।

এরপূর্বে গত ৬ জানুয়ারী মনোয়নপত্র যাছাই-বাছাইকালে ১ জন মেম্বার পদপ্রার্থীর মনোনয়নপত্র বাতিল হয় এবং ১৩ জানুয়ারী মনোনয়নপত্র প্রত্যাহারের শেষ তারিখে ৩ জন চেয়ারম্যান ও ১ জন মেম্বার পদপ্রার্থী নিজের মনোনয়নপত্র প্রত্যাহার করেন। আর আগামী ৩১ জানুয়ারী ইভিএম পদ্ধতিতে ৬ষ্ঠ দাপে উপজেলার লামাকাজী ও খাজাঞ্চী ইউনিয়ন পরিষদের ভোটগ্রহন অনুষ্ঠিত হবে। ওই দিন ভোটারদের দেওয়া ভোটে দুই ইউনিয়নে ২ জন চেয়ারম্যান, ১৮ জন সাধারণ সদস্য (মেম্বার) ও ৬ জন মহিলা সদস্য (মহিলা মেম্বার) নির্বাচিত হবেন।

উপজেলা নির্বাচন কার্যালয় সূত্রে জানা গেছে, ২১ হাজার ৯০৫ জন (পুরুষ ১১ হাজার ৫৫০ জন ও মহিলা ১০ হাজার ৩৫৫) ভোটারের লামাকাজী ইউনিয়ন পরিষদের নির্বাচনে চেয়ারম্যান পদে ৫ জন, ইউনিয়নের ৯টি ওয়ার্ডে সাধারণ সদস্য (মেম্বার) পদে ৫০ জন ও ৩টি সংরক্ষিত ওয়ার্ডে মহিলা সদস্য (মহিলা মেম্বার) পদে ১৪ জন এবং ২২ হাজার ৫১৭ জন (পুরুষ ১১ হাজার ৭০১ জন ও মহিলা ১০ হাজার ৮১৬) ভোটারের খাজাঞ্চী ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে চেয়ারম্যান পদে ৪ জন, ৯টি ওয়ার্ডে সাধারণ সদস্য (মেম্বার) পদে ৪৩ জন ও ৩টি সংরক্ষিত ওয়ার্ডের মহিলা সদস্য (মহিলা মেম্বার) পদে ১১ জন প্রার্থী প্রতিক পেয়েছেন।

এদিকে এবারের নির্বাচনে চেয়ারম্যান পদে উপজেলার লামাকাজী ও খাজাঞ্চী ইউনিয়নে আওয়ামী লীগের দলীয় একক প্রার্থী থাকলেও নেই জাতীয় পার্টির দলীয় কোন প্রার্থী। অপর দিকে বিএনপি দলীয়ভাবে নির্বাচনে অংশগ্রহন না করলেও স্বতন্ত্র প্রার্থী হিসেবে নির্বাচনে প্রতিদ্বন্দিতা করছেন বিএনপি ও অঙ্গ-সহযোগী সংগঠনের একাধিক প্রাথী।
লামাকাজী ইউনিয়নে চেয়ারম্যান পদে প্রতিদ্বন্দিতাকারীদের মধ্যে স্বতন্ত্র প্রার্থী হিসেবে বর্তমান চেয়ারম্যান ও উপজেলা বিএনপির সাবেক সাংগঠনিক সম্পাদক কবির হোসেন ধলা মিয়া ‘চশমা’, আওয়ামী লীগের দলীয় একক প্রার্থী হিসেবে ইউনিয়ন যুবলীগের সভাপতি ফয়ছল আহমদ ‘নৌকা’, স্বতন্ত্র প্রার্থী হিসেবে নব-গঠিত ইউনিয়ন বিএনপির সহ সভাপতি গোলাম কিবরিয়া তালুকদার ‘আনারস’, নব-গঠিত ইউনিয়ন বিএনপির সাংগঠনিক সম্পাদক আবেদুর রহমান আছকির ‘ঘোড়া’ ও ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশের একক প্রার্থী হিসেবে আতাউর রহমান ‘হাতপাখা’ প্রতিক পেয়েছেন।

খাজাঞ্চী ইউনিয়নে চেয়ারম্যান পদে প্রতিদ্বন্দিতাকারীদের মধ্যে স্বতন্ত্র প্রার্থী হিসেবে বর্তমান চেয়ারম্যান ও জেলা বিএনপির সাবেক সদস্য তালুকদার গিয়াস উদ্দিন ‘আনারস’, আওয়ামী লীগের দলীয় একক প্রার্থী হিসেবে বৃহত্তর সিলেট আওয়ামী পরিবার জেদ্দার সভাপতি আরশ আলী গনি ‘নৌকা’, স্বতন্ত্র প্রার্থী হিসেবে উপজেলা স্বেচ্ছাসেবক দলের যুগ্ম আহবায়ক কয়েছ মিয়া ‘ঘোড়া’ ও ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশের একক প্রার্থী হিসেবে আব্দুল বাছিত ‘হাতপাখা’ প্রতিক পেয়েছেন। এছাড়া ওই পদে মনোনয়নপত্র দাখিলকারী আওয়ামী লীগ নেতা আতাউর রহমান কালু মিয়া এবং বিএনপি নেতা আশিকুর রহমান রানা ও শরীফ আহমদ রাজু নিজেদের মনোনয়নপত্র প্রত্যাহার করে নেন।

উপজেলা নির্বাচন কর্মকর্তা ও রিটাণিং কর্মকর্তা গোলাম সারওয়ার বলেন, মনোনয়নপত্র যাছাই-বাছাই ও প্রতাহারের পর ৩টি পদে (চেয়ারম্যান, মেম্বার ও মহিলা মেম্বার) বৈধ হওয়া ১২৭ জন প্রার্থীর মধ্যে সুষ্ঠ, সুন্দর ও শান্তিপূর্ণ পরিবেশে প্রতিক বরাদ্ধ দেওয়া হয়েছে। সকলের সার্বিক সহযোগীতায় ৩১ জানুয়ারী লামাকাজী ও খাজাঞ্চী ইউনিয় পরিষদের নির্বাচনও সুষ্ঠ, সুন্দর ও শান্তিপূর্ণভাবে সম্পন্ন হবে বলে আশাবাদি।