বিশ্বনাথের দুই ইউনিয়নে তৃণমূলের ভোটে নৌকার মাঝি হলেন শংকর-ফয়ছল

ফারুক আহমদ, বিশ্বনাথ সিলেট: ষষ্ঠ ধাপে আগামী ৩১ জানুয়ারী অনুষ্ঠিতব্য ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে সিলেটের বিশ্বনাথ উপজেলার লামাকাজী ও খাজাঞ্চী ইউনিয়নে আওয়ামী লীগের মনোনীত প্রার্থী নির্ধারণের জন্য মঙ্গলবার ২১ ডিসেম্বর সকালে উপজেলা আওয়ামী লীগের বিশেষ বর্ধিত সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে।

বর্ধিত সভায় তৃণমূলের ভোটে লামাকাজী ইউনিয়নে ৯টি ভোট পেয়ে ইউনিয়ন যুবলীগের সভাপতি ফয়ছল আহমদ ও খাজাঞ্চী ইউনিয়নে ১০টি ভোট পেয়ে ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক শংকর চন্দ্র ধর নৌকার মাঝি নির্বাচিত হয়েছেন।

লামাকাজী বাজারের আল-নূর কমিউনিটি সেন্টারে অনুষ্ঠিত বিশেষ বর্ধিত সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্য রাখেন জেলা আওয়ামী লীগের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি ও স্থানীয় সাবেক এমপি আলহাজ্ব শফিকুর রহমান চৌধুরী।
প্রধান বক্তার বক্তব্য রাখেন জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক অ্যাডভোকেট নাসির উদ্দিন খান।
বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন জেলা আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক অ্যাভোকেট মাহফুজুর রহমান মাহফুজ।

লামাকাজী ইউনিয়নে নৌকার মাঝি হওয়ার লড়াইয়ে থাকা অপর দুই প্রার্থীর মধ্যে উপজেলা আওয়ামী লীগের স্বাস্থ্য ও জনসংখ্যা বিষয়ক সম্পাদক অধ্যাপক জহুরুল হোসেন জহির পেয়েছেন ৮টি ভোট, সাবেক স্বাস্থ্য ও জনসংখ্যা বিষয়ক সম্পাদক শাহনুর হোসাইন পেয়েছেন ১টি ভোট এবং বাতিল হয়েছে ১টি ভোট।

অপর দিকে খাজাঞ্চী ইউনিয়নে নৌকার মাঝি হওয়ার লড়াইয়ে থাকা অপর দুই প্রার্থীর মধ্যে বৃহত্তর সিলেট আওয়ামী পরিবার জেদ্দার সভাপতি আরশ আলী গণি পেয়েছেন ৭টি ভোট এবং বিশ্বনাথ উপজেলা ছাত্রলীগের সাবেক যুগ্ম আহবায়ক ও বিশ্বনাথ সরকারি কলেজ ছাত্রলীগের আহবায়ক মুহিবুর রহমান সুইট পেয়েছেন ৩টি ভোট।

তৃণমূলের ভোট গ্রহনের পূর্বে অনুষ্ঠিত আলোচনা সভায় বক্তারা বলেন, আজ তৃণমূলের ভোটে কে নৌকা পাবেন, আর কে পাবেন না। সেটা বড় কথা নয়। নৌকার বিজয় নিশ্চিত করার জন্য আমাদের সবাইকে ঐক্যবদ্ধভাবে কাজ করতে হবে। নৌকা বিজয়ী হলে শক্তিশালী হবে দল। দেশ ও জাতির উন্নয়নে নৌকার বিজয়ের কোন বিকল্প নেই। তাই নির্বাচনে আওয়ামী লীগের মনোনীত প্রার্থীকে নৌকা প্রতিকে ভোট দিয়ে নির্বাচিত করতে এখন থেকেই কাজ করতে হবে।

উপজেলা আওয়ামী লীগের সহ সভাপতি শাহ আসাদুজ্জামান আসাদের সভাপতিত্বে ও সাধারণ সম্পাদক ফারুক আহমদের পরিচালনায় বিশেষ বর্ধিত সভায় বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন জেলা আওয়ামী লীগের সহ সভাপতি আলহাজ্ব আশফাক আহমেদ, অধ্যক্ষ সুজাত আলী রফিক, যুগ্ম সম্পাদক মোহাম্মদ আলী দুলাল, কবির উদ্দিন আহমদ, দপ্তর সম্পাদক জগলু চৌধুরী, প্রচার সম্পাদক অ্যাডভোকেট আব্বাস উদ্দীন, শিল্প ও বানিজ্য বিষয়ক সম্পাদক ইশতিয়াক আহমদ চৌধুরী, স্বাস্থ্য বিষয়ক সম্পাদক ডাঃ শাকির আহমদ শাহীন, শিক্ষা বিষয়ক সম্পাদক বুরহান উদ্দিন, উপ-দপ্তর সম্পাদক মজির উদ্দীন, কার্যনির্বাহী সদস্য গোলাপ মিয়া, এ এইচ এম ফিরোজ আলী, উপদেষ্টা মন্ডলীর সদস্য এস এম নুনু মিয়া।

এসময় উপস্থিত ছিলেন উপজেলা আওয়ামী লীগের যুগ্ম সম্পাদক আমির আলী চেয়ারম্যান, মকদ্দছ আলী, সাংগঠনিক সম্পাদক আবুল কালাম জুয়েল, আব্দুল আজিজ সুমন, দপ্তর সম্পাদক সাহিদুল ইসলাম সাহিদ, বন ও পরিবেশ বিষয়ক সম্পাদক রুনু কান্ত দে, রামপাশা ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান অ্যাডভোকেট মোহাম্মদ আলমগীর, লামাকাজী ইউনিয়ন পরিষদের প্যানেল চেয়ারম্যান-১ এনামুল হক এনাম মেম্বার, বিশ্বনাথ পৌর আওয়ামী লীগের আহবায়ক হাজী আব্দুল জলিল জালাল, লামাকাজী ইউনিয়ন আ’লীগের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি পুলক ভট্টাচার্য্য, সাধারণ সম্পাদক অরবিন্দু পাল, আ’লীগ নেতা শাহনেওয়াজ চৌধুরী সেলিম মেম্বার, উপজেলা কৃষক লীগের সভাপতি ছুরাব আলী, সাধারণ সম্পাদক আব্দুল হান্নান বদরুল, উপজেলা শ্রমিক লীগের সাধারণ সম্পাদক হাবিবুর রহমান হাবিব, উপজেলা যুবলীগের যুগ্ম আহবায়ক আশিক আলী, উপজেলা স্বেচ্ছাসেবক লীগের সভাপতি বদরুল আলম, উপজেলা ছাত্রলীগের যুগ্ম সম্পাদক দিপু ধর, সাংগঠনিক সম্পাদক জুবায়ের আহমদ জয় প্রমুখসহ আওয়ামী লীগ ও অঙ্গ-সহযোগী সংগঠনের নেতৃবৃন্দ।