বাংলাদেশ পানি উন্নয়ন বোর্ড এর পরিচালনা পরিষদের ৪৬তম সভা অনুষ্ঠিত

নিজস্ব প্রতিবেদক: পানি সম্পদ প্রতিমন্ত্রী জাহিদ ফারুক বলেছেন; বাংলাদেশ পানি উন্নয়ন বোর্ড (বাপাউবো) এর পরিচালনা পরিষদের সভা প্রতি দুই মাস অন্তর অন্তর হতেই হবে। প্রয়োজনে অনলাইন মাধ্যমে এই সভা নিয়ুমিত অনুষ্ঠিত হতে হবে। তিনি টেকসই প্রকল্প গ্রহণ ও বাস্তবায়নের তাগিদ দেন। আগামী সভায় সকল প্রকল্পের বিস্তারিত তুলে ধরার নির্দেশ দেন। এছারা প্রকল্প এলাকায় স্থানীয়দের সমন্বয়ে একটি কমিটি করে দেয় হবে যারা কাজের মানের ব্যাপারে মতামত দিবে। এছাড়া নদী হতে বালু উত্তলনের সময় দেখতে হবে বালু উত্তলনের এর ফলে কোনোরুপ ক্ষয়ক্ষতির আশংকা রয়েছে কিনা।

রাজধানীর পানি ভবন সভাকক্ষে বাংলাদেশ পানি উন্নয়ন বোর্ড (বাপাউবো) এর পরিচালনা পরিষদের ৪৬তম সভায় তিনি এসব কথা বলেন। সভার শুরুতে সভাপতি পানি সম্পদ প্রতিমন্ত্রী ও পরিচালনা পরিষদের চেয়ারম্যান জাহিদ ফারুক শ্রদ্ধার সাথে স্মরণ করেন সর্বকালের সর্বশ্রেষ্ঠ বাঙ্গালী জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানসহ ১৫ আগস্ট এর শহীদদের।

সভায় আলোচ্য সূচি উপস্থাপন করেন বাংলাদেশ পানি উন্নয়ন বোর্ড (বাপাউবো) এর সচিব মো: মুজিবুর রহমান। প্রথমেই ৪৫তম সভার কার্যবিবরণী উপস্থাপন ও নিশ্চিতকরণ করা হয়। এছাগড়াও তিস্তা ব্যারেজ,বিলুপ্ত বি.আর.ই, শরীয়তপুর পওর একটি করে শাখা স্থানান্তরপূর্বক সংযোজন, বাংলাদেশ পানি উন্নয়ন বোর্ড (বাপাউবো) কর্তৃক বাস্তবায়িত সেচ প্রকল্পে সেচ সার্ভিস চার্জ এবং পানি ভবনে একটি মেডিকেল সেন্টার স্থাপনের বিষয় বিশদ আলোচনা হয়।

সভায় জানানো হয় যেখানে ব্যক্তি পর্যায় সেচ দিতে খরচ হয় ৪হাজার ৫শ টাকা সেখানে বাংলাদেশ পানি উন্নয়ন বোর্ড (বাপাউবো) কৃষকের কাছ থেকে নিচ্ছে মাত্র ৪শ ৫০টাকা। সেচের জন্য যে পরিমান পানি কৃষকের জমিতে দেয় হবে ঠিক সেই পরিমান পানির জন্য সার্ভিস চার্জ যথাযথভাবে আদায় করে সরকারি কোষাগারে জমা দেয়ার ব্যবস্থা গ্রহণের নির্দেশ দেন সিনিয়র সচিব কবির বিন আনোয়ার। এছারাও সার্ভিস চার্জ পুন:নির্ধারণ ও আদায় পদ্বতিও ঠিক করার তাগিদ দেন তিনি। বোর্ড এর জমি লিজ প্রদানের ক্ষেত্রে সরকারি আইন ও বিধি যথাযথভাবে অনুসরণের নির্দেশ দেন। প্রতি দুইমাস পর পর এই সভাটি নিয়মিত আহবানেরও উল্লেখ করে তিনি।

সবাইকে ধন্যবাদ জানিয়ে সবার সমাপ্তি করেন পানি সম্পদ প্রতিমন্ত্রী ও পরিচালনা পরিষদের চেয়ারম্যান জাহিদ ফারুক । সবাইকে স্বাস্থ্যবিধি মেনে জীবন জাপনের আহবান জানিয়ে সবার সুস্বাস্থ্য ও দীর্ঘায়ু কামনা করেন তিনি।

সভায় আরও উপস্থিত ছিলেন বন ও জলবায়ু পরিবর্তন মন্ত্রণালয় এর সচিব মো: মোস্তফা কামাল, বাংলাদেশ পানি উন্নয়ন বোর্ড (বাপাউবো) এর মহাপরিচালক ফজলুর রশিদসহ পরিচালনা পরিষদের সদস্যগণ ও বিভিন্ন দপ্তরের কর্মকর্তাবৃন্দ।