বগুড়ায় শজিমেক ইন্টার্ন চিকিৎসককে ছুরিকাঘাত 

  • আব্দুর রাজ্জাক শেরপুর বগুড়া প্রতিনিধি
বগুড়ায় তুচ্ছ ঘটনাকে কেন্দ্র করে শহীদ জিয়াউর রহমান মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের এক ইন্টার্ন চিকিৎসককে ছুরিকাঘাতের ঘটনা ঘটেছে। গতকাল রাতে এ ঘটনা ঘটে।
ছুরিকাহত ইন্টার্ন চিকিৎসকের নাম মো. ফাহিম রহমান (২৮)। তি‌নি ইন্টার্ন ২৫তম ব্যাচের চিকিৎসক ও ঢাকার সবুজবাগের নুর মোহাম্মাদের ছেলে। এ ঘটনায় পুলিশ একজনকে আটক করেছে।
জানা যায়, সন্ধ্যার পর বন্ধুদের সঙ্গে ফাহিম হাসপাতালের ২ নম্বর গেটে আড্ডা দিচ্ছিলেন। এসময় তারা ফরিদ ব্যাপারীর দোকানে ঝালমুড়ি খেতে যান। একপর্যায়ে তুচ্ছ ঘটনাকে কেন্দ্র করে ঝালমুড়ি বিক্রেতার সঙ্গে ফাহিমের বাকবিতণ্ডা শুরু হয়। এতে ক্ষিপ্ত হয়ে ঝালমুড়ি বিক্রেতার ছেলে শাকিল তার হাতে থাকা পেয়াজ কাঁটার চাকু দিয়ে ফাহিমের পেটে আঘাত করে পালিয়ে যান।
শহীদ জিয়াউর রহমান মেডিকেল কলেজ শাখা ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক মোফাজ্জল হোসেন রনি বলেন, তুচ্ছ ঘটনায় ফাহিমকে ছুরিকাহত করা হয়েছে তার চিকিৎসা চলছে। দ্রুত জড়িতদের গ্রেপ্তারের দাবি জানাচ্ছি।
বগুড়া সদর থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) আব্দুর রহিম বলেন, এ ঘটনায় ঝালমুড়ি বিক্রেতা ফরিদ ব্যাপারীকে (৫৫) আটক করা হয়েছে। তার ছেলে শাকিল হোসেন (২৫) পলাতক আছেন। তা‌কে গ্রেপ্তারে অভিযান চলছে।