বই মেলার সঙ্গে সংশ্লিষ্ট ব্যক্তিদের টিকার সনদ না থাকলে জরিমানা

ইমন হোসেন, স্টাফ রিপোর্টার: চলতি মাসের ১৫ তারিখে শুরু হতে যাওয়া ‘অমর একুশে বইমেলা- ২০২২’এ টিকা সনদ ছাড়া কাউকে স্টলে পাওয়া গেলে মোটা অংকের জরিমানা করা হবে বলে জানিয়েছেন ডিএমপি কমিশনার মোহা. শফিকুল ইসলাম। এছাড়া এবার বইমেলায় নিরাপত্তার কোনো হুমকি নাই বলেও নিশ্চিত করেন তিনি।

তবে আনসারুল্লাহ বাংলা টিমের প্রধান জঙ্গি মেজর জিয়া জেলের বাইরে থাকায় সবকিছু বিবেচনা করে জোরদার করা হয়েছে নিরাপত্তা ব্যবস্থা।

রবিবার (১৩ ফেব্রুয়ারি) সোহরাওয়ার্দী উদ্যানে বইমেলার নিরাপত্তা পর্যবেক্ষণ শেষে সাংবাদিকদের এসব কথা বলেন তিনি।

অমর একুশে বইমেলা ২০২২ উপলক্ষে মেলার সর্বশেষ পরিস্থিতি এবং সার্বিক নিরাপত্তা পরিদর্শন করেন ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশ কমিশনার জনাব মোহাম্মদ শফিকুল ইসলাম, বিপিএম (বার)

এ সময় ডিএমপির উর্ধতন অন্যান্য কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন। এসময় সোহরাওয়ার্দী উদ্যানে স্থাপিত অস্থায়ী পুলিশ কন্ট্রোল রুমে আয়োজিত এক সংবাদ সম্মেলনে ডিএমপি কমিশনার বলেন মেলার প্রতিটি ইঞ্চি জায়গা সিসি ক্যামেরার আওতায় থাকবে। মেলার আশেপাশের এলাকায় নজরদারীর জন্য মোবাইল টিম থাকবে। মেলার ভেতর থাকবে শ্পেশাল মোবাইল টিম, সাদা পোশাকে গোয়েন্দা দল, পর্যাপ্ত সংখ্যক মহিলা পুলিশ, তল্লাসী দল। বিশেষ পরিস্থিতি মোকাবেলায় থাকবে বিশেষায়িত ইউনিট সোয়াত, বোম্ব ডিসপোজাল ইউনিট, ক্রাইম সিন ভ্যান ও ডগ স্কোয়াড। মেলার প্রবেশ পথে আর্চওয়ে এবং মেটাল ডিটেক্টরের মাধ্যমে আগত দর্শনার্থী দের তল্লাশির করে মেলায় ঢুকতে দেয়া হবে।

ডিএমপি কমিশনার আরও বলেন, মেলায় দর্শনার্থী প্রবেশের ক্ষেত্রে যথাযথ স্বাস্থ্যবিধি মানতে হবে। তাপমাত্রা পরিমাপের জন্য মেলার প্রবেশ পথে বিশেষ ব্যাবস্থা গ্রহন করা হয়েছে। মেলার ভেতরেও মাস্ক পরিধানের বাধ্যবাধকতা থাকবে। মেলার ভিতরে মোবাইল টিম স্বাস্থ্যবিধি পর্যবেক্ষন করবে। এছাড়া মেলার প্রতিটি স্টলের কর্মকর্তা কর্মচারীদের টিকা সনদ থাকা বাধ্যতামূলক করা হয়েছে।

জঙ্গি হামলার কোন ধরনের হুমকী আছে কিনা সাংবাদিক দের এ প্রশ্নের জবাবে ডিএমপি কমিশনার বলেন, আপাদত কেন হুমকী নেই তবে সব কিছুকে একেবারে উড়িয়ে দিলে চলবে না, তবে যে কোন কিছু মোকাবেলার জন্য আমাদের প্রস্তুতি রয়েছে। আশা করি এমন কোন ঘটনার সম্মুখীন হবার সম্ভাবনা নেই।