ফেনী সমিতি-ঢাকা নির্বাচনে আলোচনায় শীর্ষে গনি-বুলবুল পরিষদ

ফেনী সমিতি-ঢাকা নির্বাচনে আলোচনায় শীর্ষে গনি-বুলবুল পরিষদ

মাসুদ রানাঃ জমে উঠেছে আসন্ন ফেনী সমিতি ঢাকার নির্বাচন। এ নিয়ে এরই মাঝে সরগরম হয়ে উঠেছে ঢাকা ফেনী সমিতি অঙ্গন।

আগামী ২৭ নম্ভেবর-২১ ইং শনিবার বঙ্গবন্ধু আন্তজার্তিক সম্মেলন কেন্দ্রে ফেনী সমিতি ঢাকার নির্বাচনের ভোটগ্রহণ অনুষ্ঠিত হবে।

এবারের ফেনী সমিতি ঢাকার নির্বাচনে একাদিক প্যানেল প্রতিযোগিতা করলে ও এবারে দুই প্রতিদ্বন্দ্বী নির্বাচনে অংশ গ্রহন করবে।গনি-বুলবুল পরিষদ ও শেখ আব্দুল্লাহ ও সেলিম পরিষদ।

প্রবাসী ও ফেনীবাসীর প্রাণের সংগঠন ফেনী সমিতি ঢাকা।এ সমিতির পূর্ণরূপ ও হারানো গৌরব ফিরিয়ে আনতে অঙ্গিকারবদ্ধ,আলহাজ্ব গনি আহামদ-ডাঃ বুলবুল পরিষদ ।

ফেনী সমিতি ঢাকা একটি অরাজনৈতিক সমিতি এখানে পেশীশক্তি ও রাজনীতিক শক্তির প্রয়োগ করে কেউ নির্বাচনে জয়ী হতে পারবে বলে জানান,গনি-বুলবুল পরিষদ এর সভাপতি পদপ্রার্থী,বিশিষ্ট শিল্পপতি সমাজসেবক,হাই-ফ্যাশন গ্যালারি ও দ্বীন গ্রুপের চেয়ারম্যান সাবেক ফেনী সমিতি ঢাকার সফল সাধারন সম্পাদক,আলহাজ্ব গনি আহামদ।তিনি বলেন ফেনী সমিতির দীর্ঘদিনের ঐতিহ্য গৌরবের,ফেনী সমিতি ভবন নির্মানসহ সকল উন্নয়ন কাজ অব্যাহত রাখার জন্য যোগ্য নেতৃত্ব্য ফেনী সমিতি ঢাকা আশা জরুরী ।উক্ত নির্বাচন কে ঘিরে তরুণরা ফ্যাক্টর হয়ে উঠছেন বলে মনে করছেন প্রার্থী ও ভোটাররা।

প্রার্থী ও ভোটারদের সঙ্গে কথা বলে জানা যায়, গতবার এ নির্বাচনে সুস্থ ভোট হওয়ার কথা থাকলে ও সুস্থ ভোট হয়নি বলে জানান,গনি- বুলবুল পরিষদ এর ফেনী সমিতি ঢাকা যুগ্নসাধারন সম্পাদক পদপ্রার্থী মোঃ মামুনুর রশিদ সাহেদ,তিনি আরো বলেন ফেনী সমিতি ঢাকা ফেনীবাসীর একটি প্রাণের অরাজনৈতিক সংগঠন।এই প্রাণের সংগঠনে পেশীশক্তি ও রাজনৈতিক শক্তি প্রয়োগ করার কোনো মানে হয় না,গঠনতন্ত্র মেনে সমিতির কার্যক্রম গ্রহন করার উচিত,সমিতি তে সদস্যের গচ্ছিত আমানত গচ্ছিত আছে,কিনা তা নিয়ে ও সন্ধিহান,তাই আমি মনে করি সুস্থ নিরপেক্ষ নির্বাচন হলে গনি-বুলবুল পরিষদ জয় সুনিশ্চিত হবে সকল সদস্যবৃন্দের মূল্যবান আমানত স্বচ্ছ থাকবে।

অন্যদিকে শেখ আব্দুল্লাহ-সেলিম পরিষদ’র সভাপতি শেখ আব্দুল্লাহ ও নির্বাচন কমিশনকে একটি সুস্থ নিরপেক্ষ নির্বাচনের দাবী জানিয়েছেন।

ফলে এবারের নির্বাচন ঘিরে দুই পক্ষেই এখন বাড়তি তোড়জোড় চালাচ্ছেন ও নতুন ভোটারদের উপস্থিতি’তে বাড়তি মাত্রা যোগ করবে এবারের ফেনী সমিতি ঢাকার নির্বাচনে।