ফেনী সদর হাসপাতালে রোগীর স্বজনদের পিটিয়ে লাঞ্চিত 

ফেনী প্রতিনি: ফেনী ২৫০ শয্যা সদর হাসপাতালে মেডিসিন ওয়ার্ডে ভর্তিকৃত এক রোগীর স্বজনদেরকে আটক করে পিটিয়ে লাঞ্ছিত করার অভিযোগ উঠেছে হাসপাতালের নিরাপত্তাকর্মীর বিরুদ্ধে।

জানা যায়, বুধবার (২২ জুন) ফেনী ২৫০ শয্যা সদর হাসপাতালের মেডিসিন ওয়ার্ডে ভর্তিকৃত রোগীকে দেখতে  হাসপাতলে আসে সুজা মিয়া ও তোফাজ্জল।হাসপাতালে নিরাপত্তা নিয়োজিত অস্থায়ী কর্মচারী তাদেরকে কার্ড ছাড়া হাসপাতালে প্রবেশ করতে বাঁধা দেয়। এ নিয়ে তাদের মধ্যে বাগবিতণ্ডা হয়। এক পর্যায়ে তাদের হাসপাতালের ভিতরে ঢুকিয়ে গেট বন্ধ করে রোগীর স্বজনদের লাঠি দিয়ে পিটিয়ে গুরুতর আহত করেছে দায়িত্বে থাকা নিরাপত্তাকর্মীরা। এতে হট্টগোলের সৃষ্টি হলে অন্যান্য রোগীরা ও বিড়ম্বনার স্বীকার হয়।

এমতাবস্থায় তাদের মারপিটের ছবি ধারন করতে গেলে সিনিয়র সাংবাদিক যতন মজুমদারের মোবাইল ফোনটি ছিনিয়ে নিয়ে যায়।

হাসপাতালের আবাসিক মেডিকেল অফিসার মো. ইকবাল হোসেন ভূঞা বলেন, একসঙ্গে ২-৩ জন প্রবেশ করতে চাইলে নিরাপত্তা কর্মীরা বাঁধা দেয়। এ নিয়ে উভয়ের মধ্যে কথা কাটাকাটি হয়।

ফেনী জেনারেল হাসপাতালের তত্ত্বাবধায়ক ডা. মো. আবুল খায়ের মিয়াজী বলেন ঘটনাটা খুবই দুঃখজনক, তবে পুরো ঘটনার সত্যতা যাচাই করে আমি যথাযথ ব্যাবস্থা গ্রহণ করব।