পেঁয়াজের বাম্পার ফলনেও, লোকসান গুনতে হচ্ছে কৃষকের

সায়েম খান, হরিরামপুর (মানিকগঞ্জ) প্রতিনিধি: মানিকগঞ্জ জেলার হরিরামপুর উপজেলায় পেঁয়াজের ভালো ফলন হলেও নেই ভালো দাম। তবুও সাগা (গুটি) পেঁয়াজের ফলন ঘরে তুলতে ব্যস্ত সময় পার করছে চাষিরা। তাদের প্রতি মণ বিক্রি করতে হচ্ছে ৭০০ থেকে ৯০০ টাকায়। এতে ভালো দাম পাচ্ছেন না কৃষকেরা।

ঝিটকা সরদার পাড়ার এক কৃষক বলেন, আমরা ৪০ হাজার টাকা খরচ করে ১ বিঘা সাগা (গুটি) পেঁয়াজ লাগাইছি। ফলন ভালো হইলেও  ভালো দাম পাইতেছি না প্রতি মণ ৮০০ থেকে ৯০০ টাকা করে বিক্রি করতে হইতেছে এতে তো মনে হয় খরচের টাকাও উঠব না।

ঝিটকা বাজারে পেঁয়াজ বিক্রি করতে আসা তোতা (৫৫) জানান, আমি ৩ বিঘা পেঁয়াজ লাগাইছি যে দাম দেখতাছি এতে তো মনে হয় খরচের দামও পাওয়া যাইব না। কয়েক দিন ঘরে রাইখা যে এই পেঁয়াজ বিক্রি করুম সেই পরিস্থিতিও নাই। ঘরে রাখলেই পঁইচা যাইব এর জন্য লোকসানেই বিক্রি করতে হইতেছে।

ঝিটকা কলা হাটার আইনাল মোল্লা বলেন, সাগা (গুটি) পেঁয়াজ ৮০০ থেকে ৯০০ টাকায় বিক্রি করলে তো খরচ’ই উঠব না বরং লোকসান হইব। গত কয়েক বছর পেঁয়াজের ভালো দাম পাইলেও এবার লোকসান হইব।

এ ব্যপারে হরিরামপুর উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা মো: আব্দুল গফফার বলেন, এবার গোটা উপজেলায় ৩১ হেক্টরের বেশি জমিতে পেঁয়াজ চাষ হয়েছে। এর মধ্যে কিং জাতের পেঁয়াজ বেশি।