পাকিস্তান-ওয়েস্ট ইন্ডিজের ওয়ানডে সিরিজ স্থগিত

নিজস্ব প্রতিবেদক: পাকিস্তান সফরে ওয়েস্ট ইন্ডিজের একাধিক ক্রিকেটার করোনা ভাইরাস আক্রান্ত হওয়াতে শেষ পর্যন্ত দুই দেশের তিন ম্যাচের ওয়ানডে সিরিজ স্থগিত হয়ে গেছে। দুই দেশের ক্রিকেট বোর্ড যৌথ বিবৃতি দিয়ে এই ঘোষণায় আসে।  আগামী বছরের জুনে এই সিরিজ অনুষ্ঠিত হবে।

করোনা ভাইরাসের কারণে ওয়েস্ট ইন্ডিজ দলে খেলোযাড় সংকট দেখা দেয়। তিন ম্যাচের টি-টোয়েন্টি সিরিজের শেষ ম্যাচ শুরু নিয়ে শঙ্কা দেখা দেয়। শেষ পর্যন্ত আজ ম্যাচটি অনুষ্ঠিত হয়। কিন্তু ওয়ানডে সিরিজ শুরু করা আর সম্ভব হয়নি। ওয়ান ডে সিরিজ শুরু হওয়ার কথা ছিল ১৮ ডিসেম্বর। পরের দুই ম্যাচের তারিখ ছিল ২০ ও ২২ ডিসেম্বর। সবগুলো ম্যাচের ভেন্যু ছিল করাচি।

ওয়েস্ট ইন্ডিজ দলে করোনা আঘাত হানে টি-টোয়েন্টি সিরিজ শুর হওয়ার আগেই। তখন আক্রান্ত হয়েছিলেন তিন ক্রিকেটার বাঁহাতি পেসার শেলডন কটরেল, স্পিনিং অলরাউন্ডার রোস্টন চেইস ও কাইল মেয়ার্স। বৃহস্পতিবার (১৬ ডিসেম্বর) সকালে শেষ টি-টোয়েন্টি ম্যাচের আগে আক্রান্ত হন আরো তিন ক্রিকেটারসহ দলের পাঁচজন। তিন ক্রিকেটার ছিলেন শেই হোপ, আকিল হোসেন ও জাস্টিন গ্রিভস। অপর দুই জন ছিলেন হয়েছেন সহকারী কোচ রডি ইস্টউইক ও দলীয় ফিজিও আকশাই মানসিং। এরফলে ওয়েস্ট ইন্ডিজের দল মাঠে নামানোই কঠিন হয়ে পড়ে।

বোমা হামলার পর থেকে পাকিস্তানে দীর্ঘদিন আর্ন্তজাতিক ক্রিকেট নিষিদ্ধ ছিল। এখন ধীরে ধীরে তা ফিরতে শুরু করেছে। কিন্তু তারপরও বিপদ পিছু ছাড়ছে না পাকিস্তানের। কিছুদিন আগে নিরাপত্তার অভিযোগ তুলে খেলার দিন সকালে নিউ জিল্যান্ড খেলতে অস্বীকৃতি জানিয়ে দেশে ফিরে যায়। পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান নিজে চেষ্টা করেও নিউ জিল্যান্ড দলকে রাজি করাতে পারেননি।

তিন ম্যাচের টি-টোয়েন্টি সিরিজের প্রথম দুই ম্যাচ জিতে পাকিস্তান সিরিজ নিশ্চিত করেছিল। তৃতীয় ম্যাচে ওয়েস্ট ইন্ডিজ টস জিতে ব্যাট করতে নেমে ৩ উইকেটে ২০৭ রানের মজবুত সংগ্রহ গড়ে তুলে। জবাব দিতে নেমে পাকিস্তানও ছেড়ে কথা বলছে না। ১২ ওভারে কোন উইকেট না হারিয়ে তারা সংগ্রহ করেছে ১১৬ রান। রিজওয়ান ৬৩ ও বাবর আজম ৫০ রানে ব্যাট করছেন।