নড়াইলে ছোট ভাই ও স্ত্রীর অত্যাচারে সালমা খাতুন দুটি বাচ্চা সহ গোয়াল ঘরে জীবন যাপন

সাজ্জাদ তুহিন নড়াইল প্রতিনিধিঃ নড়াইলে আপন ভাই শরিফুল ও তার স্ত্রী বড়ো ভাই রফিকুলের স্ত্রী ও তার দুই সন্তানকে ঘরথেকে মালামাল সহ বেরিয়ে দেওয়ার অভিযোগ পাওয়া গিয়াছে। ঘটনাটি ঘটেছে নড়াইল কালিয়া উপজেলার বাবরা হাচলা ইউনিয়নের কাঞ্চনপুর গ্রামে। শরিফুল ও রফিকুল মৃত্যু আবুল হোসেনের ছেলে।

৯ জানুয়ারী (রবিবার) দুপুরে কাঞ্চনপুর সরজমিনে গিয়ে স্থানীয় সূত্রে ও ভুক্তভোগীর কাছে জানা যায়, বড়ো ভাই রফিকুল জেল হাজতে থাকায় তাদের দূর্বলতার সুযোগ নিয়ে গত ৭ জানুয়ারী শুক্রবার সকাল নয়টার দিকে বহিরাগত সন্ত্রাসীদের এনে ছোট ভাই শরিফুল ও তার স্ত্রী বড়ো ভাইয়ের স্ত্রী  সালমা খাতুন (২৫) কে মারধর করে দুটি দুধের বাচ্চা ও মালামাল সহ ঘরথেকে বের করে দেয়।

এ অবস্থায় বড়ো বৌ সালমা খাতুন কোন উপায় উপান্ত না পেয়ে বসত ঘরের পাসে থাকা একটি গোয়াল ঘরে দুটি বাচ্চা কে নিয়ে খড়কুটো বিছিয়ে সেখানেই জীবন মানবেতর জীবন যাপন করছেন। এ বিসয় সম্পর্কে রফিকুলের স্ত্রী সালমা খাতুন এর কাছে জানতে চাইলে তিনি আবেগে আপ্লুত কান্যাভরা কন্ঠে বলেন, আমার দেবর শরিফুলরা মোট চার ভাই, এর মধ্যে রফিকুল ও শরিফুল কোন ভাগ বন্টন ছাড়াই মিলে মিশে একই বাড়িতে আলাদা আলাদা ঘরে বসবাস করে। বাকি দুই ভাইয়েরা তাদের অংশ বুঝে নিয়ে অন্যত্রে  থাকেন।

এ অবস্থায় আমার স্বামী রফিকুল এলাকায় একটি দূর্ঘটনায় নড়াইল জেল হাজতে রয়েছে। আর এই সুযোগে আমার দেবর শরিফুল ও তার স্ত্রী মিলে নড়াইল থেকে সন্ত্রাসী এনে এই বিল্ডিং ঘর আমরা বানিয়েছি বলে, আমাদের মারধর করে মালামাল সহ আমার দুধের বাচ্চা কে ছুড়ে ফেলে দেয় বাইরে।

 এবং পরে ঘরে তালা লাগিয়ে দেয় ওই শরিফুল ও তার স্ত্রীর ভাড়া করা সন্ত্রাসী বাহিনীরা।এই ঘটনায় আমি বিচার চেয়ে জেলা প্রশাসক, জেলা পুলিশ সুপার, ও কালিয়া থানায় অভিযোগ করেছি।
শরিফুলের বৃদ্ধ মা তিনি কেঁদে কেঁদে সাংবাদিক দের বলেন,আমার ছেলে শরিফুল আমাকে খেতে পরতে বা আমার কোন খোঁজই রাখে না, আর একছেলে রফিকুল জেল খানায় আটক থাকায় বৌমা সালমা খাতুনই আমার দেখা শুনা করতো। এমনকী এই বিল্ডিং ঘর টি আমার ছেলে রফিকুল কষ্ট করে জোন বিক্রি করে বানিয়েছে, এবিসয়ে একজন মা হিসাবে আমি যা বলছি এটাই সত্যি। তাই আমি এর সুষ্ঠ বিচার চাই।

তবে অভিযুক্ত শরিফুল কে বাড়িতে পাওয়া যায়নি, কিন্তু তার স্ত্রীর কাছে এই অভিযোগের বিসয় জানতে চাইলে তিনি বিসয়টি অশিকার করে বলেন আমার শাশুড়ী ও তার বেটার বৌ সালমা খাতুন যা বলেছেন তা সম্পূর্ণ মিথ্যা বানোয়াট ও ভিত্তিহীন।