নৌকা ও হাতি বয়টক করে দেওয়াল ঘড়িকে বিজয়ী করার আহবান মেয়র প্রার্থী সিরাজুল মামুনের

স্টাফ রিপোর্টার: নারায়ণগঞ্জ সিটি কর্পোরেশন নির্বাচনে নৌকা ও হাতি প্রতীকের বাক বিতন্ডার কারণে সুষ্ঠ নির্বাচন নিয়ে জনমনে শংকা দেখা দিয়েছে। সরকার দলীয় মেয়র প্রার্থী আইভী ও একটি পরিবারের সমর্থনীয় প্রার্থী তৈমূর আলম ইতিমধ্যেই আস্থা হারিয়েছেন। নৌকা ও হাতি প্রতীককে মানুষ এখন বিশ^াস করেন না। বিকল্প প্রার্থী খুঁজছে তারা। দেওয়াল ঘড়ি প্রতীক ইতিমধ্যেই জনগণের ভালোবাসায় আস্থা অর্জন করেছে। জানমালের নিরাপত্তাসহ ইতিবাচক আলোকিত নারায়ণগঞ্জ গড়তে সিরাজুল মামুনকে ভোট দেওয়ার আহবান জানান খেলাফত মজলিস নেতৃবৃন্দ। ১২ জানুয়ারি বন্দরের ২৬ ও ২৭নং ওয়ার্ডে সকাল থেকে বিকাল পর্যন্ত দিনভর গণসংযোগ করে প্রচারনা চালিয়েছেন সিরাজুল মামুন।

আর মাত্র ৩দিন পরেই নারায়ণগঞ্জ সিটি কর্পোরেশনের নির্বাচন অনুষ্ঠিত হতে যাচ্ছে। নির্বাচন বানচাল করার জন্য একটি পক্ষ কাজ করছে। কিন্তু আমরা মাঠ ছাড়বো না বলে ঘোষণা দিয়েছে মেয়র প্রার্থী সিরাজুল মামুন। বন্দরের বিভিন্ন ওয়ার্ডের এলাকাগুলোতে প্রতিনিয়ত গণসংযোগকালে তিনি নানা প্রতিশ্রæতি দিয়ে যাচ্ছেন এবং একটি শান্তিপূর্ণ নির্বাচনসহ শান্তিময় নগরী গড়ে তোলার প্রত্যয়ে দেওয়াল ঘড়ি প্রতীককে ভোট দিয়ে নির্বাচিত করার আহবান জানান তিনি। গণসংযোগকালে খেলাফত মজলিসের শীর্ষ নেতা মাওলানা আহম্মদ আলী কাশেম, মাওলানা সালাউদ্দিন, তাওহিদুল ইসলাম তুহিন, মুফতী আলী আকরাম, মাওলানা জহিরুল ইসলাম, মাওলানা এমদাদ সিরাজী, হাফেজ কবির হোসেন, ইসলামী ছাত্র মজলিসের নেতা শাব্বির আহম্মেদ, জাহিদ হাসানসহ খেলাফত মজলিসের কেন্দ্রীয় ও ঢাকা মহনগরী কমিটি ও বন্দর থানা এবং মহানগর কমিটির গুরুত্বপূর্ণ দায়িত্বশীল নেতৃবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।