নোবিপ্রবি ডিবেটিং সোসাইটির চতুর্দশ প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উদযাপিত

রাজু, নোবিপ্রবি প্রতিনিধি: নোয়াখালী বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয় (নোবিপ্রবি) ডিবেটিং সোসাইটির চতুদর্শ  প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উদযাপিত হয়েছে। আজ বুধবার (২৪ নভেম্বর) সকালে বিশ্ববিদ্যালয়ের আইকিউএসি সেমিনার কক্ষে কেক কেটে প্রতিষ্ঠাবার্ষিকীর উদ্বোধন করেন বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক ড. মো. দিদার-উল-আলম।

অনুষ্ঠানে অন্যদের মাঝে উপস্থিত ছিলেন বিশ্ববিদ্যালয়ের উপ-উপাচার্য অধ্যাপক ড. মো. আবদুল বাকী,  কোষাধ্যক্ষ অধ্যাপক ড. মো. ফারুক উদ্দিন,  বঙ্গমাতা শেখ ফজিলাতুন্নেসা মুজিব হলের প্রভোস্ট শাহিন কাদির ভূঁইয়া ডিবেটিং সোসাইটির মডারেটর ও ইংরেজি বিভাগের সহযোগী অধ্যাপক আফসানা মৌসুমী এবং ডিবেটিং সোসাইটির সহকারী মডারেটর ও সিএসটিই বিভাগের প্রভাষক এ. কিউ. এম. সালাউদ্দিন পাঠান।

অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন উপাচার্য অধ্যাপক ড. মো. দিদার- উল আলম। উদ্বোধনকালে তিনি বলেন, “পড়াশোনার পাশাপাশি সহ-শিক্ষামূলক বিভিন্ন কার্যক্রমে নিজেদেরকে নিয়েজিত করা উচিত।  সবকিছু সম্পর্কে জ্ঞান রাখা, মুক্ত মানুষ হিসেবে গড়ে উঠার জন্য এই জ্ঞান দরকার”। করোনাকালীন নোবিপ্রবি ডিবেটিং সোসাইটির বিভিন্ন কার্যক্রমের প্রশংসা করে ডিবেটিং সোসাইটির সার্বিক কার্যক্রমে বিশ্ববিদ্যালয় সর্বদা সহযোগিতায় কথাও তিনি বলেম।

নোবিপ্রবি ডিবেটিং সোসাইটির সহকারী মডারেটর ও বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান হলের সহকারী প্রভোস্ট এ. কিউ. এম. সালাউদ্দিন পাঠান বলেন , “নোবিপ্রবি ডিবেটিং সোসাইটির বিতর্কিকরা তথ্য উপাত্ত বিশ্লেষণের মাধ্যমে কল্যাণকর সিদ্ধান্ত বের করতে জানে যা দেশকে এগিয়ে নিতে সহায়তা করতে পারে”।

উল্লেখ্য, নোবিপ্রবি ডিবেটিং সোসাইটি প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উপলক্ষে গত ২০ নভেম্বর থেকে ২৫ নভেম্বর পর্যন্ত ৫ দিনব্যাপী অনলাইন-অফলাইনের মাধ্যমে নানা কর্মসূচি হাতে নিয়ে বাস্তবায়ন করেছে।

ডিবেটিং সোসাইটির সভাপতি মুহতামিম সিয়াম বলেন, ” আমরা সবাই শিক্ষার্থী, সেজন্য শিখতে চাই প্রতিনিয়ত, শিখতে চাই বিশ্লেষণ করে, জানতে ও বুঝতে গঠনমুলক সমালোচনার মাধ্যমে। এরই ধারাবাহিকতায় আমরা চর্চা করি যুক্তি উপস্থাপনার। এই চর্চা আমাদেরকে অধিক চিন্তাশীল ও সূক্ষ্ম বিচারিক ক্ষমতার সমন্বয়ে গড়ে উঠতে সাহায্য করবে”।