নোবিপ্রবিতে আজ থেকে শুরু হল লুমিনারির কার্যক্রম

রাজু, নোবিপ্রবি প্রতিনিধিঃ করোনাকালীন প্রায় ২০ মাস বন্ধ থাকার পর আজ থেকে আবার চালু হল নোবিপ্রবির ‘লুমিনারি’র কার্যক্রম। নোবিপ্রবি শিক্ষার্থীদের দ্বারা পরিচালিত এই স্বেচ্ছাসেবী সংঘটনটি ২০১৫ সাল থেকে  সুবিধাবঞ্চিত শিশুদের বিনামূল্যে পাঠদান করে আসছে।

আজ শুক্রবার (৩ ডিসেম্বর) বিকাল ৩টা থেকে শুরু হয় করোনাপরবর্তী প্রথম কার্যক্রম। বিকাল ৫টা পর্যন্ত চলমান এই কার্যক্রমে প্রথম দিনেই অংশগ্রহণ করে ৭৮ জন সুবিধাবঞ্চিত শিশু শিক্ষার্থী। দীর্ঘ সময় পর পড়ালেখায় ফিরে উচ্ছ্বসিত শিক্ষার্থীরা। লুমিনারির একজন শিক্ষার্থী সালেহা বেগম; তিনি বলেন, “দীর্ঘদিন পর আজকে পড়তে আসলাম ভাইয়া-আপুদের কাছে। আমি খুব আনন্দিত”।

ষষ্ঠ শ্রেণির শিক্ষার্থী মারজাহান নামের আরেক শুক্ষার্থী বলেন, “করোনা আমাদেরকে দীর্ঘদিন আমরা বাসায় আটকে রেখেছিলছিল। লুমিনারি আবার চালু হওয়ায় আবার আমরা পড়তে এসেছি। পড়ানোর পাশাপাশি কিভাবে ভালো একজন মানুষ হব তাও আমরা শিখি লুমিনারিতে”। লুমিনারির সভাপতি শামীম তাজ বলেন, “মহামারির কারণে গত ২০ মাস লুমিনারির কার্যক্রম বন্ধ ছিল। আজ আবার কার্যক্রম  শুরু হয়েছে এবং বেশ উৎসাহের সঙ্গে আজকের কার্যক্রমে শিক্ষার্থীরা অংশ নিয়েছে”।

উল্লেখ্য, লুমিনারি শব্দের আভিধানিক অর্থ আলোর উৎস। বিশ্ববিদ্যালয়ের আশেপাশের এলাকার সুবিধাবঞ্চিত শিশুদের মানসিক বিকাশ ও সুন্দর ভবিষ্যৎ গড়ার উদ্দেশ্য নিয়ে ‘প্রতিটি শিশু মানুষ হোক আলোর ঝর্ণাধারায়’ স্লোগান নিয়ে শিশুদের বিনামূল্যে পাঠদানের পাশাপাশি খেলাধুলা, বিনোদন, উপহার ও খাবার বিতরণ করে থাকে সংগঠনটি। করোনার প্রভাবে বিশ্ববিদ্যালয় বন্ধের আগে সংগঠনটির নিবন্ধিত শিক্ষার্থীর সংখ্যা ছিলো ১১৬ জন।