ধামরাইয়ে মৃত্যুর পর দিনই এলো চাকরির ভেরিফিকেশন

মোঃ আব্দুল আহাদ বাবু, ধামরাই (ঢাকা) প্রতিনিধি: ঢাকা ধামরাইয়ে সেলিম আনোয়ার সাদ্দাম (৩২) নামের এক চাকরি প্রার্থীর পুলিশ ভেরিফিকেশন করতে গিয়ে জানতে পারেন আগের দিনই সড়ক দুর্ঘটনায় তার মৃত্যু হয়েছে। বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন উপ- পরিদর্শক (এসআই) মোঃ সিদ্দিকুর ও মনির হোসেন।
গত মঙ্গলবার (৩০ নভেম্বর) বিকেলে ঢাকা আরিচা মহাসড়কের ঢাকার ধামরাইয়ের নিকটবর্তী মানিকগঞ্জ এর উচুটিয়া পুলিশ লাইনের সামনে মোটরসাইকেল ও ট্রাকের সংঘর্ষে ঘটনাস্থলেই মোটরসাইকেল আরোহী সেলিম আনোয়ার সাদ্দাম (৩২) মারা যান। পরের দিন বুধবার নিহতের নামে চাকরির জন্য পুলিশ ভেরিফিকেশন আসলে জানতে পারেন আগের দিন সড়ক দুর্ঘটনায় তার মৃত্যু হয়েছে।
নিহত সেলিম আনোয়ার ধামরাই উপজেলার নান্নার ইউনিয়নের নান্নার গ্রামের সাবেক মেম্বার  আব্দুর রাজ্জাকের ছেলে। সেলিম আনোয়ার সাদ্দামের মৃত্যুর একদিন পরই তার চাকরির বিষয়ে তদন্তে গিয়ে বিষয়টি জানতে পারেন দুই তদন্ত কর্মকর্তা এসআই সিদ্দিকুর ও  মনির হোসেন।
এ বিষয়ে ডিএসবির কর্মকর্তা মনির হোসেন বলেন, সেলিম আনোয়ারের চাকরির তদন্ত করতে গিয়ে জানতে পারলাম তিনি গতকাল সড়ক দুর্ঘটনায় মারা গেছেন। তার একটি মাদ্রাসায় চাকরি হয়েছিলো।
সেলিম আনোয়ারের প্রতিবেশি মোঃ শহিদুল্লাহ বলেন, নিয়তির কি নির্মম পরিহাস। গতকাল সেলিম আনোয়ার সড়ক দূর্ঘটনায় মারা গেছেন আর আজ তার চাকরির ভেরিফিকেশন এসেছে। আল্লাহ কখন কার কপালে কি লিখে রেখেছেন তা কেউ বলতে পারে না।
আফাজ উদ্দিন স্কুল এন্ড কলেজের অধ্যক্ষ তোফাজ্জল হোসেন বলেন, সেলিম আনোয়ার আমার গ্রামেরই ছেলে। চমৎকার লেখালেখি করতো সে। সদালাপী, ভদ্র, নম্র ছিলো। করুণ দৃশ্য গতকাল তিনি মারা গেলেন, আর আজকেই তার চাকরির ভেরিফিকেশন এসেছে। এটা মেনে নেয়া যায় না।আজ জানতে পারলাম তার একটি মাদ্রাসায় চাকরি হয়েছে। তার ভেরিফিকেশন করতে এসেছেন পুলিশের দুই কর্মকর্তা।
জানা যায়, গত মঙ্গলবার (৩০ নভেম্বর) মানিকগঞ্জ গামী মোটরসাইকেল ঢাকা মেট্রো হ ৪৮-৫১১২ এর  সাথে, একইগামী ট্রাক ঢাকা মেট্রো ট ১৬-০৪৩০ অতিক্রম করার সময় দূর্ঘটনাটি ঘটে। দূর্ঘটনায় মটরসাইকেলটি দুমড়ে মুচড়ে যায় এবং মোটরসাইকেল  চালক সেলিম আনোয়ার সাদ্দাম গুরুতর আহত হইয়ে ঘটনাস্থানেই মৃত্যু বরন করেন।
মটরসাইকেল, ট্রাক এবং ট্রাক চালক মজিবর রহমান (৪৫)কে আটক করে মানিকগঞ্জ থানায় হস্তান্তর করার বিষয়টি জানান গোলড়া হাইওয়ে থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মনিরুল ইসলাম।