দক্ষিণ আফ্রিকায় দেয়াল টপকে ঘরে ঢুকে বাংলাদেশিকে হত্যা

মো.শরীফ উদ্দিন দক্ষিণ আফ্রিকা: দক্ষিণ আফ্রিকার ঘাউটেং প্রদেশের বেননী রোড়ে পমোনাত এলাকায় মীর হোসেন নামে এক বাংলাদেশিকে গুলি করে হত্যা করেছে সন্ত্রাসীরা।

স্থানীয় বাংলাদেশী আব্দুল রাজ্জাক জানান, সোমাবার (৭ফেব্রুয়ারি) রাত ৮টার সময় প্রতিদিনের মতো আজও দোকান বন্ধ করে খাওয়া শেষে আঙ্গিনায় হাটাহাটি আর গল্পগুজব করেছিলেন মীর হোসেন তার পার্টনার সহ কর্মচারীদের নিয়ে। রাত প্রায় ১০টার দিকে গল্পগুজব অবস্থায় একদল কৃষ্ণাঙ্গ সন্ত্রাসী দেয়াল টপকে ঘরে ঢুকে। তখন মনির হোসেন, মোঃ শিপন, আব্দুল্লাহ আল মামুন, মোঃ সোহেল সহ ৪বাংলাদেশিকে গুলি ধরে পকেটের টাকা মোবাইল নিয়ে টয়লেটের মধ্যে আটকিয়ে রাখে। এসময় ডাকাতদল নগদ অর্থ, মূল্যবান জিনিসপত্র এবং ব্যাংকের কার্ড নিয়ে যায়। পালিয়ে যাওয়ার সময় মিরাজের মাথায় এবং বুকে দুই রাউন্ড গুলি চালিয়ে মৃত্যু নিশ্চিত করে চলে যায়।

নিহত মেরাজ কুমিল্লা জেলার চৌদ্দগ্রাম থানার আলকরা ইউনিয়নের, দত্তর সাহা গ্রামের সৈয়দ বাড়ির মোঃ শফিকুর রহমানের ছেলে। দেশে তার ২কন্যা মেয়ে রয়েছে। সে প্রায় ১৮বছর ধরে দক্ষিণ আফ্রিকায় ব্যবসা করে আসছিলেন। স্থানীয় এলাকায় পার্টনারশিপে আরো কয়েকটি দোকান রয়েছে।

মঙ্গলবার বিকেল ৫টার দিকে মিরাজের জায়নাযা বেনুনি মসজিদের সামনে অনুষ্ঠিত হয়েছে। নিহত মিরাজের লাশ আগামীকাল বুধবার দক্ষিণ আফ্রিকার টাইম সকাল ১১ ঘটিকার সময় এখান থেকে পাঠানো হবে। বৃহস্পতিবার সকালে বাংলাদেশ এয়ারপোর্টে পৌঁছাবে।