তদন্তের মুখে রুট-অ্যান্ডারসন

স্পোর্টস ডেস্ক: অস্ট্রেলিয়ায় মাতাল হয়ে হট্টগোল করেছেন ইংল্যান্ড অধিনায়ক এবং জিমি অ্যান্ডারসন। তাদের আচরণ এতটাই মাত্রা ছাড়িয়েছিল যে, পুলিশের হস্তক্ষেপে টিম হোটেলে পাঠানো হয় দুই ক্রিকেটারকে। অপ্রীতিকর সেই ঘটনার ভিডিও ভাইরাল এখন সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে। এরই জেরে ইংল্যান্ড অ্যান্ড ওয়েলস ক্রিকেট বোর্ডের (ইসিবি) তদন্তের মুখে রুট-অ্যান্ডারসন।

অ্যাশেজের পঞ্চম ও শেষ টেস্ট অস্ট্রেলিয়া জিতে নেয় তিন দিনে। ১৬ জানুয়ারি ম্যাচ শেষ হওয়ার রাতে, হোবার্টে টিম হোটেলের পাশে এক রেস্তোরাঁয় স্বাগতিক ক্রিকেটার- নাথান লায়ন, ট্রাভিস হেড এবং অ্যালেক্স ক্যারির সঙ্গে মদের আসরে বসেন রুট ও অ্যান্ডারসন। প্রত্যেকের পরনে ছিল জাতীয় দলের সাদা জার্সি। ক্রাউন প্লাজা হোটেলের একটি পাবলিক জায়গায় তাদের হট্টগোল চলছিল সকাল ৬টা পর্যন্ত (স্থানীয় সময়)।

এ প্রসঙ্গে পুলিশ এক বিবৃতিতে বলেছে, ‘মদ্যপ ব্যক্তিদের বিরুদ্ধে অভিযোগের পর সোমবার সকালে তাসমানিয়া পুলিশ ক্রাউন প্লাজায় গিয়েছিল। অতিথিদের সঙ্গে পুলিশ কথা বলেছে এবং বলা মাত্র তারা ওখান থেকে চলে যান। পুলিশ আর কোনো পদক্ষেপ নেবে না।’ তবে পুরো ঘটনার ভিডিও ফুটেজ সংবাদমাধ্যম ‘সিডনি মর্নিং হেরাল্ড’ প্রকাশ করার পর নড়েচড়ে বসেছে ইসিবি।

ধারণা করা হচ্ছে, মোবাইল ভিডিওটি ধারণ করেছেন ইংল্যান্ডের সহকারী কোচ গ্রাহাম থর্প। যেখানে খেলোয়াড়দের উদ্দেশে এক নারী পুলিশকে বলতে শোনা যাচ্ছে, ‘অনেক শব্দ হচ্ছে। আপনাদের অবশ্যই আরও আগে চলে যেতে বলা হয়েছে। এজন্যই আমাদের এখানে আসতে বলা হয়েছে। ঘুমানোর সময় হয়েছে, ধন্যবাদ। তারা চায় আপনারা চলে যান।’