টেকনাফ পৌরসভা নির্বাচনে মোহাম্মদ ইসমাইল মেয়র পদে হাইকোট থেকে প্রার্থীতা ফিরিয়ে পেয়েছে 

দিদারুল আলম সিকদার, কক্সবাজার জেলা প্রতিনিধিঃ টেকনাফ পৌরসভা নির্বাচনে মেয়র পদে সাবেক ভারপ্রাপ্ত মেয়র মোহাম্মদ ইসমাইলের প্রার্থীতা বৈধ ঘোষণা করেছে হাইকোর্ট। রবিবার (১২ ডিসেম্বর) বিচারপতি এম ইনায়েতুর রহীম ও মোস্তাফিজুর রহমানের দ্বৈত বেঞ্চে রীট পিটিশন নং-১২২৮৬/২০২১ শুনানী শেষে এ আদেশ দেন। এতে নির্বাচনে অংশ গ্রহণে আইনগত আর কোন প্রতিবন্ধকতা নেই।
মেয়র প্রার্থী ইসমাইলের পক্ষে মামলা পরিচালনা করেন সুপ্রীম কোর্ট বারের সাবেক সহ সম্পাদক  মোঃ সাইফুর রহমান। সরকারের পক্ষে মামলা পরিচালনা করেন ডি এ জি বিপুল বাগমার। বাদিপক্ষের আইনজীবী মোঃ সাইফুর রহমান জানান, গত ২৯ নভেম্বর প্রার্থীতা বাছাইয়ের দিন এস.এস.সি পাশের মূল সনদ দাখিল না করার অভিযোগে মোহাম্মদ ইসমাইলের মনোনয়নপত্র বাতিল করেন উপজেলা নির্বাচন অফিসার মোহাম্মদ বেদারুল ইসলাম। পরে ৫ ডিসেম্বর জেলা প্রশাসকের নিকট আপীলে খারিজ হয়। অবশেষে প্রার্থীতা ফিরে পেতে উচ্চ আদালতের আশ্রয় নিয়েছিলেন মোহাম্মদ ইসমাইল। সবকিছু বিবেচনা করে মোহাম্মদ ইসমাইলের প্রার্থীতা বৈধ ঘোষণা দিয়েছেন বিচারক।
উল্লেখ্য, আগামী ২৬ ডিসেম্বর টেকনাফ পৌরসভার ভোট। মোহাম্মদ ইসমাইল স্বতন্ত্র প্রার্থী। তাঁর প্রতীক মোবাইল। নৌকা প্রতীকে নির্বাচন করছেন বর্তমান মেয়র হাজ্বী মোহাম্মদ ইসলাম। মেয়র পদে জাপা প্রার্থী শাহজাহান মনোনয়নপত্র প্রত্যাহার করে নেয়ায় দুইজনের মধ্যে প্রতিদ্বন্দ্বিতা হবে।
গত ৬ ডিসেম্বর ছিল মনোনয়পত্র প্রত্যাহারের শেষ দিন। এদিন কাউন্সিলর পদে চারজন প্রার্থী বিনাপ্রতিদ্বন্দ্বিতায় নির্বাচিত হন। তাঁরা হলেন- ৩ নাম্বার ওয়ার্ডে এহেতেশামুল হক বাহাদুর, ৬ নাম্বার ওয়ার্ডে মো. আবদুল্লাহ মনির, ৭ নাম্বার ওয়ার্ডে মাওলানা মুজিবুর রহমান এবং ৮ নাম্বার ওয়ার্ডে মো. মনিরুজ্জামান। তাঁরা ৪ জনই বর্তমান কাউন্সিলর।