চরম্বায় মিথ্যাচারের বিরুদ্ধে পাল্টা সংবাদ সম্মেলন অনুষ্ঠিত 

মো. এরশাদ আলম, লোহাগাড়া (চট্টগ্রাম): চট্টগ্রামের লোহাগাড়া উপজেলার চরম্বা ইউনিয়নের ৮নং ওয়ার্ডের নোয়ারবিলা এলাকার খয়রাতি পাড়া এলাকায় পৈতৃক সম্পত্তিতে গৃহ নির্মাণে প্রশাসনের ভয় দেখিয়ে চেয়ারম্যান হেলাল উদ্দীন ও কালু মেম্বারের নাম ব্যবহার করে দফাদার লিটনের চাঁদা দাবি, বহিরাগত সন্ত্রাসীদের প্রাণনাশের হুমকি এবং সাংবাদিকদের ভূয়া তথ্য পরিবেশনে

সংবাদ সম্মেলন করার প্রতিবাদে পাল্টা অপরএকটি সংবাদ সম্মেলন করছেন ভুক্তভোগী পরিবারের সদস্যরা।

শনিবার (১৩ আগস্ট) সকাল ১১টায় উপজেলা সদর বটতলী মোটর স্টেশনস্থ দি জামান হোটেল মিলনায়তনে অনুষ্ঠিত সংবাদ সম্মেলনে লিখিত বক্তব্য পাঠ করেন ভুক্তভোগী পরিবারের জনৈকা সদস্যা ছমুদা বেগম।

লিখিত বক্তব্যে তিনি উল্লেখ করেন, তাদের পৈতৃক জায়গা ৫গন্ডার উপর আদালতের বিচারাধীন ৫গন্ডার বাইরে ভিন্ন দাগের জায়গায় পাঁকা বাড়ি নির্মাণ করছিলেন।

এতে ইউনিয়ন গ্রাম পুলিশের দফাদার লিটন দাশ সহকর্মীদের নিয়ে দফায় দফায় হানা দিয়ে প্রশাসনের ভয় ও চেয়ারম্যান এবং কালু মেম্বারের নাম ব্যবহার করে চাঁদা দাবি করে আসছিলেন বলে তিনি লিখিত বক্তব্যে উল্লেখ করেন।

এক পর্যায়ে গত ২৯ জুলাই সকাল আনুমানিক  ১২টায় জনৈকা ছমুদা বেগম রান্নার কাজে ব্যবহার করার জন্য গাছ-বাঁশ কাটছিলেন। ওই সময় দফাদার লিটন দাশ তার সহকর্মীদের নিয়ে পূনরায় পূর্বের মত উপস্থিত হয়ে প্রশাসনের ভয় দেখিয়ে চাঁদা দাবি করতে থাকেন এবং অকথ্য ভাষায় কথাবার্তা বলে তাঁর শ্লীলতাহানি করার অপচেষ্টা করেন বলে উল্লেখ করেন। পরে তিনি দা হাতে দাঁড়িয়ে সাবধান করে দেন যে ওইসব অশালীন কথা বার্তা থেকে বিরত থাকার জন্য। এতে দফাদার লিটন দাশ ক্ষিপ্ত হয়ে তার উপর চড়াও হলে তিনি শোর-চিৎকার করে আত্নরক্ষার জন্য পরিবারের অন্যদের সাহায্য চান। পরবর্তীতে লিটন দাশ ক্ষিপ্ত হয়ে বাড়ির অন্যান্য মহিলাদের উপর ঝাঁপিয়ে পড়েন।

অথচ, নিতান্ত দুঃখের বিষয় যে, মূল ঘটনাটি ভিন্নভাবে প্রভাবিত করার জন্য সত্যকে আড়াল করে মিথ্যাে তথ্য পরিবেশনে গত ১১ আগস্ট এক সংবাদ সম্মেলন করেন। তাতে তিনি তার নিজ দোষকে চাপিয়ে রেখে আমরা ভুক্তভোগী পরিবারেন উপর দোষ চাপিয়ে দেন। তাই তিনি ও ভুক্তভোগী পরিবারের সদস্যরা এই সংবাদ সম্মেলনের মাধ্যমে লিটন দাশের কর্মকলাপ ও সংবাদ সম্মেলনে লিখিত বক্তব্যের বিরুদ্ধে পাল্টা সংবাদ সম্মেলন করে  তিব্র প্রতিবাদ ও নিন্দা জানিয়েছেন। সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, তাঁরা আইনের প্রতি গভীর শ্রদ্ধাশীল। যে কারণে এহেন নিরাপত্তাহীনতায় তাদের রক্ষার জন্য প্রশাসনের জরুরী হস্তক্ষেপ দাবি করেছেন। সংবাদ সম্মেলনে অন্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন ভুক্তভোগী পরিবারের মুহাম্মদ বেলাল উদ্দিন, হুরাইন জান্নাত, জয়নাব বেগম, ইছমত আরা বেগম ও মিজানুর রহমান প্রমুখ।