চরপার্বতীর বিশিষ্ট সমাজ সেবক আমানত উল্যাহ্ সুযোগ্য সন্তান মঞ্জু আনারস প্রতিকে চেয়ারম্যান হলে আদর্শ ইউনিয়ন গড়ার প্রত্যয় ঘোষণা

আবুল কালাম আজাদ (স্বাধীন), নোয়াখালী প্রতিনিধি: ঐতিহ্যবাহী জেলা নোয়াখালী অঞ্চলের কোম্পানীগঞ্জ উপজেলার ২ নং চরপার্বতী ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনকে অন্য ৮ টি ইউনিয়নের তুলনায় খুবই গুরুত্বপূর্ণ মনে করছে ইউপি নির্বাচন বিশ্লেষকগণ। আনারস প্রতিকের চেয়ারম্যান পদপ্রার্থী মাহাবুবুর রশীদ মঞ্জু গত ২৯ শে জানুয়ারী ৬ নং ওয়ার্ডের গোড়ারটেক এলাকায় মহিলা সমাবেশে বলেন, আমার পিতা মরহুম সাবেক সাব রেজিষ্ট্রার, বিশিষ্ট সমাজসেবক আমানত উল্যাহ্ এলাকায় অনেক স্কুল-কলেজ,মাদ্রাসাসহ অসংখ্য উন্নয়ন করে গেছেন, তিনি মৃত্যুর আগে আমাকে বলেছেন: আমি এলাকার মানুষের পাশে ছিলাম, আমার মৃত্যুর পরে আমার বড় ছেলে হিসেবে এলাকার মানুষের পাশে থাকবে, সেই ওয়াদা রক্ষা করতে ঢাকা থাকলে আমার শ্রদ্ধেয় মামা সড়ক ও সেতুমন্ত্রীর মাধ্যমে এবং নিজের চেষ্টায় এলাকায় অনেক উন্নয়ন করেছি। আরো করবো এটা পিতাকে ওয়াদা দিয়েছি। একবার চেয়ারম্যান নির্বাচীত হয়ে আমি এলাকার উন্নয়নে সবার মাঝে বাকি জীবন থাকতে চাই। মাদক,সন্ত্রাসসহ অসামাজিক কার্যকলাপ বন্ধে করে আদর্শ গ্রাম তুলবো ইশাল্লাহ । ৭ ই ফেব্রæয়ারী ২০২২ অনুষ্ঠিত হবে বহুকাংক্ষিত ইউপি নির্বাচন। বর্তমান ক্ষমতাসীন আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক এবং সড়ক ও সেতুমন্ত্রী জনাব ওবায়দুল কাদের এর নির্বাচনী এলাকার এবং আপন বড় বোনের জ্যোষ্ঠ ছেলে মাহাবুবুর রশীদ মঞ্জু, আনারস প্রতিকে স্বতন্ত্র চেয়ারম্যান পদপ্রার্থী ওঠান বৈঠকে বক্তারা বলেন। যদিও ৪ জন চেয়ারম্যান পদপার্থী।

স্থানীয় হাবিব উল্যাহ্ বলেন, আমি বর্তমান মেম্বার এবারও প্রতিদ্ব›িদ্বতা করার কথা ছিল কিন্তুু প্রাণের বাতিজা মঞ্জুর আনারস প্রতিকে নির্বাচন করতে মেম্বার নির্বাচন না করে তাঁর পক্ষে কাজ করছি মানুষের সাড়াও পাচ্ছি, বিজয় হবে ইনশাল্ল্যাহ। নির্বাচনী

সমন্বয় কমিটির সুত্রে বলা হয়েছে, মঞ্জু অত্র ইউনিয়নের বাংলাদেশ আওয়ামীলীগের মনোনীত চেয়ারম্যান পদপ্রার্থী। তিনি বর্তমানে অত্র ইউনিয়নের আ’লীগের প্রধান মুখপাত্র। মঞ্জু সাহেবের মাধ্যমে পারিবারিক সুত্রতায় সড়ক ও সেতু মন্ত্রী জনাব ওবায়দুল কাদের অবকাঠামোগত উন্নয়ন যেমন,স্কুল,কলেজ,মাদ্রাসা,মসজিদ নতুন ভবন নির্মাণসহ অসংখ্য অবহেলিত রাস্তার কালো পিচে পূর্ণ নির্মাণ এবং দারিদ্র জনগোষ্ঠিকে অনেক সহযোগীতাও করেছেন। সেটি জনগণ দেখছে। এলাকার মানুষ পূর্বের মতো ভুল করবেনা ।

আরও বেশি উন্নয়নের জন্য মঞ্জুর আনারস প্রতিকে চেয়ারম্য্যান বিজয় হওয়ার আশাবাদ ব্যক্ত করেন।

এদিকে ৩ নং ওয়ার্ডে এনামুল বলেন, আনারস প্রতিক বিজয় হলে অন্যদের তুলনায় উন্নয়ন করার সুযোগ আছে । উন্নয়নে বিশ্বাসী লোকদের মাধ্যমে ভোটারদের বাড়িতে গেলে এবং ভোট কেন্দ্রে যাওয়ার সুন্দর পরিবেশ পেলে আনারস প্রতিকের বিজয়ের সম্বাবনা রয়েছে। তিনি আরও বলেন, অন্য প্রার্থীরাও কেউ বসে নেই।

৭ নং ওয়ার্ডের সাব্বির বলেন,দলীয় প্রতিক না থাকায় সব প্রার্থীদের প্রচার বেশি করতে হবে। ১ নং ওয়ার্ডের রতন ও হেদায়েত বলেন, উন্নয়নের স্বার্থে আনারস প্রতিকের জনাব মঞ্জু ভাইকে বিজয়ী করা ভালো হবে। স্থানীয়রা আরও বলেন, প্রশাসনের নিকট  ভোট কেন্দ্রে যাওয়ার সুষ্ঠু পরিবেশ দাবি করে বলেন দলীয় প্রতিক না থাকায় সব প্রার্থীদের চরম পরীক্ষায় উপণীত হতে হবে এবং প্রচার-প্রচারণা বেশি করতে হবে বলে মতামত আসছে। অন্যদিকে, অত্র ইউনিয়নের সচেতন মহল এবং ইউনিয়ন পরিষদের সুশিল সমাজগণ বর্তমান সরকারের হ্যাভি ওয়েট মন্ত্রীর একান্ত আপন মানুষকে উন্নয়নের ঘাটতি নিরসনে আনারস প্রতিকে চেয়ারম্যান পদপ্রার্থী মাহাবুবুর রশীদ মঞ্জুকে চেয়ারম্যান নির্বাচিত করা অনুরোধ জানাচ্ছেন উঠান বৈঠক ও নির্বাচনী সভা-সমাবেশে।