চরপার্বতীতে উন্নয়নের ঘাটতি ব্যাপক ! আনারস প্রতিকের মঞ্জু মন্ত্রীর আপন বাগিনা,উন্নয়ন প্রতিশ্রুতি প্রত্যেক ঘরে পৌঁছালে বিজয় সম্ভাবনা

আবুল কালাম আজাদ (স্বাধীন), নোয়াখালী প্রতিনিধি: ঐতিহ্যবাহী জেলা নোয়াখালী অঞ্চলের কোম্পানীগঞ্জ উপজেলার ২ নং চরপার্বতী ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনকে অন্য ৮ টি ইউনিয়নের তুলনায় খুবই গুরুত্বপূর্ণ মনে করছে ইউপি নির্বাচন বিশ্লেষকগণ। আগামী ৭ ই ফেব্রæয়ারী ২০২২ অনুষ্ঠিত হবে বহুকাংক্ষিত ইউপি নির্বাচন। অত্র ইউপিতে বর্তমান ক্ষমতাসীন আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক এবং সড়ক ও সেতুমন্ত্রী জনাব ওবায়দুল কাদের যাকে মায়ের পরবর্তীতে সবচেয়ে বেশি শ্রদ্ধা করেন সেই আপন জ্যোষ্ঠ বোনের বড় ছেলে / বড় বাগিনা মাহাবুবুর রশীদ মঞ্জু, আনারস প্রতিকে স্বতন্ত্র চেয়ারম্যান পদপ্রার্থী হিসেবে নির্বাচনে অংশগ্রহণ করছেন। বাগিনা হিসেবে সবচেয়ে বেশি ¯েœহ করেন স্থানীয়রা জানিয়েছেন। একই ইউপিতে বর্তমান চেয়ারম্যান মোজাম্মেল হোসেন (কামরুল) টেলিফোন প্রতিকে স্বতন্ত্র চেয়ারম্যান পদপ্রার্থী, মোহাম্মদ হানিফ মটর সাইকেল প্রতিক স্বতন্ত্র এবং মোঃ আব্দুল হালিম স্বতন্ত্র টেবিল ফ্যান প্রতিকে চেয়ারম্যান পদপ্রার্থী হিসেবে নির্বাচনী প্রচার-প্রচারণা চালিয়ে যাচ্ছেন। স্থানীয়রা জানিয়েছেন, যদিও ৪ জন চেয়ারম্যান পদপ্রার্থী কিন্তু ভোটের মাধ্যমে তুমুল প্রতিদ্ব›িদ্বতা হবে সেতুমন্ত্রীর বাগিনা মাহাবুবুর রশীদ মঞ্জুর আনারস প্রতিকের সাথে বর্তমান চেয়ারম্যান মোজাম্মেল হোসেন (কামরুল) টেলিফোন প্রতিকের।

স্থানীয় হাবিব উল্যাহ্ বলেন, আমি বর্তমান মেম্বার এবারও প্রতিদ্ব›িদ্বতা করারকথা  ছিল কিন্তুু প্রাণের বাতিজা মঞ্জুর আনারস প্রতিকে নির্বাচন করছেন বরে সেটি বিসর্জন দিয়ে তাঁর পক্ষে কাজ করছি মানুষের সাড়াও পাচ্ছি বিজয় হবে ইনশাল্ল্যাহ। এদিকে ৩ নং ওয়ার্ডে এনামুল বলেন, আনারস প্রতিক বিজয় হলে অন্যদের তুলনায় উন্নয়ন করার সুযোগ আছে । উন্নয়নে বিশ্বাসী লোকদের মাধ্যমে ভোটারদের বাড়িতে গেলে এবং ভোট কেন্দ্রে যাওয়ার সুন্দর পরিবেশ পেলে আনারস প্রতিকের বিজয়ের সম্বাবনা রয়েছে। তিনি আরও বলেন, অন্য প্রার্থীরাও কেউ বসে নেই।

৭ নং ওয়ার্ডের সাব্বির বলেন, দলীয় প্রতিক না থাকায় সব প্রার্থীদের প্রচার বেশি করতে হবে, কিন্তুু যে ব্যক্তি চেয়ারম্যান হবে কম ভোটের ব্যবধানে বিজয়ী হবে বলে ধারণা। ১ নং ওয়ার্ডের রতন ও হেদায়েত বলেন, অত্র উন্নয়নে অনেক সমস্যা রয়েছে ঐগুলোর সমাধান এবং উন্নয়নের স্বার্থে আনারস প্রতিকের জনাব মঞ্জু ভাইবে বিজয়ী করা ভালো হবে।

স্থানীয়রা আরও বলেন, প্রশাসনের নিকট ভোট কেন্দ্রে যাওয়ার সুষ্ঠু পরিবেশ দাবি করে বলেন দলীয় প্রতিক না থাকায় সব প্রার্থীদের চরম পরীক্ষায় উপণীত হতে হবে এবং প্রচার-প্রচারণা বেশি করতে হবে বলে মতামত আসছে। অন্যদিকে, অত্র ইউনিয়নের সচেতন মহল এবং ইউনিয়ন পরিষদের সুশিল সমাজগণ বর্তমান সরকারের হ্যাভি ওয়েট মন্ত্রীর ¯েœহের আপন বাগিনা হওয়াতে উন্নয়নের ব্যাপক ঘাটতি নিরসনে আনারস প্রতিকে চেয়ারম্যান পদপ্রার্থী মাহাবুবুর রশীদ মঞ্জুকে চেয়ারম্যান হিসেবে দেখতে চায়।