চট্টগ্রাম উন্নয়নের দায়িত্ব মেয়রকেই নিতে হবে -স্থানীয় সরকার মন্ত্রী

জাহাঙ্গীর আলম চট্টগ্রাম: চট্টগ্রামে জাতীয় স্থানীয় সরকার ইন্সটিটিউট কতৃক আয়োজিত পুরাতন নগর ভবনে চট্টগ্রাম সিটি কর্পোরেশনের কাউন্সিলরগণের জন্য ‘সিটি কর্পোরেশন প্রশাসন অবহিতকরণ’ শীর্ষক ২ (দুই) দিনব্যাপী প্রশিক্ষণের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে সকল প্রতিষ্ঠানকে ঐক্যবদ্ধ করে চট্টগ্রামের সার্বিক উন্নয়নের দায়িত্ব সিটি কর্পোরেশনের মেয়রকে নিতে হবে বলে জানিয়েছেন স্থানীয় সরকার, পল্লী উন্নয়ন ও সমবায় মন্ত্রী মোঃ তাজুল ইসলাম।
শনিবার (২৭ নভেম্বর) সকালে নগরের মাইজপাড়ায় চসিকের বহদ্দারহাট বারইপাড়া হতে কর্ণফুলী নদী পর্যন্ত খাল খনন প্রকল্প কাজের ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপন অনুষ্ঠানে মন্ত্রী এ মন্তব্য করেন।
মন্ত্রী বলেন, চট্টগ্রামকে বাংলাদেশের দ্বিতীয় রাজধানী বলা হয়। পৃথিবীর অনেক দেশের সিটি কর্পোরেশন তাদের নিজস্ব অর্থ দিয়ে মেট্রোরেল, ফ্লাইওভার এমনকি বিমানবন্দর নির্মাণ করে থাকে। এই জন্যই সিটি কর্পোরেশনের মেয়রকে নগর পিতা বলা হয়। কাউন্সিলরদেরকে সততা, স্বচ্ছতার  জবাবদিহিতা নিশ্চিত করনের মাধ্যমে সুশাসন প্রতিষ্ঠার লক্ষে কাজ করার নির্দেশনা প্রদান করেন। তিনি বলেন আপনারা জনগণের নির্বাচিত প্রতিনিধি হয়েছেন মানুষকে সেবা , সমাজে ন্যায় প্রতিষ্ঠা, অন্যায়-অবিচার, দূর্নীতি ও অনিয়ম করার জন্য। শুধু অর্থ বরাদ্দ দিলেই উন্নতি হয় না , এর জন্য দরকার সুশাসন, স্বচ্ছতা ও জবাবদিহিতা। নাগরিক সেবা নিশ্চিত করার পাশাপাশি সরকারের সুযোগ-সুবিধা পৌঁছে দেয়া এবং সমাজের সকল অন্যায়-অবিচার ও বৈষম্য নিরসনে প্রতিটি ওয়ার্ডকে দশটি সাব জোনে ভাগ করে সকল শ্রেণীর মানুষকে সম্পৃক্ত করে কমিটি গঠন করার তাগিদ দেন। মেয়র-কাউন্সিলর সবাইকে একসাথে কাজ করতে হবে তাহলে লক্ষ্যে পৌঁছানো সম্ভব।
তিনি আরো বলেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সারা বাংলাদেশের উন্নয়নের জন্য সরকার নিরলসভাবে কাজ করে যাচ্ছেন। বিশেষ কারণে চট্টগ্রামের উন্নয়নে অগ্রধিকার দেওয়া হবে। চট্টগ্রামের উন্নয়নের লক্ষে জনপ্রতিনিধি, সরকারি কর্মকর্তা এবং সাধারণ মানুষকে সাথে নিয়ে মেয়রকে আন্তরিকভাবে কাজ করার আহ্বান জানান মন্ত্রী।
চট্টগ্রাম সিটি কর্পোরেশনের মেয়র মোঃ রেজাউল করিম চৌধুরীর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন স্থানীয় সরকার বিভাগের সিনিয়র সচিব হেলালুদ্দীন আহমদ, প্যানেল মেয়র গিয়াস উদ্দীন সহ প্রমূখ।
পরে, জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান মোহাম্মদ আব্দুস সালামের সভাপতিত্বে এক অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত হয়ে জেলা পরিষদ ভবনের মূল অংশের নির্মাণ কাজের, প্রশিক্ষণপ্রাপ্তদের সেলাই মেশিন ও অন্যান্য উপকরণ প্রদান এবং জেলার গৃহহীনদের জন্য জেলা পরিষদ কর্তৃক নির্মিত গৃহের চাবি হস্তান্তর কার্যক্রমের উদ্বোধন করেন স্থানীয় সরকার মন্ত্রী।