গুলিস্তানের বাসচাপায় দুইজন নিহতের ঘটনায় চালক রাকিব র‍্যাবের জালে আটক 

ইমন হোসাইনঃ চুক্তিভিত্তিক গাড়ি চালানোতে বেশি যাত্রী, বেশি লাভ, এই আশায় বেপরোয়া গতিতে গাড়ি চালাতো মেঘলা পরিবহনের চালক রাকিব শরীফ (২৫)। তার এমন বেপরোয়া গতিতে প্রাণ গেলো দুই পথচারিরর। ঘটনার পর রাকিব পালিয়ে যায়। তবে গোয়েন্দা তৎপরতায় কয়েক ঘণ্টার মধ্যেই রাকিবকে গ্রেফতার করে র‍্যাব।
রবিবার (৯ জানুয়ারি) দুপুরে কারওয়ান বাজারে র‍্যাব-এর মিডিয়া সেন্টারে আয়োজিত এক সংবাদ সম্মেলনে র‍্যাব-এর মুখপাত্র খন্দকার আল মঈন এতথ্য জানান।
তিনি জানান, শনিবার ৮ জানুয়ারি ঢাকা মহানগরীর হানিফ ফ্লাইওভারে সকাল সাড়ে ৯টায় মেঘলা পরিবহনের একটি বাস নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে কয়েকজন পথচারীকে ধাক্কা দেয়। এতে শেখ ফরিদ (২৮) এবং বাদশা মিয়া (৩২) নামের দুই ব্যক্তি নিহত হন। দুর্ঘটনার পর ঘাতক চালক রাকিব শরীফ বাসটি রেখে পালিয়ে যায়। পরে রাতেই ওয়ারী এলাকায় আত্মগোপনে থাকা রাকিবকে গ্রেফতার করে র‍্যাব।
কমান্ডার আল মঈন বলেন, রাকিব ৭-৮ বছর ধরে মেঘলা পরিবহনে হেলপার হিসেবে কাজ করে আসছিলো। একটা সময় গাড়ির মালিকদের সংগে লবিং করে হালকা যানের লাইসেন্স দিয়েই ভারী যান চালানো শুরু করে। তার ভারী যানবাহন চালানোর কোনো অনুমোদন ছিলো না।
বেপরোয়া গতি ও পরিবহন নৈরাজ্য থামছে না। এর সমাধান কী সাংবাদিকদের এমন প্রশ্নের জবাবে র‍্যাব-এর মুখপাত্র বলেন, আমাদের সবার চাওয়া নিরাপদ সড়ক আন্দোলন। কিছু দিন আগে আমাদের ছাত্ররা নিরাপদ সড়কের দাবিতে আন্দোলন করেছে। সড়কে দুঘটনা কারোরই কাম্য নয়। সম্প্রতি আমরা দেখেছি সড়কে বেশ কিছু দুর্ঘটনা ঘটেছে। সেখানে আমরা কাজ করতে গিয়ে দ্রুত গতিতে গাড়ি চালানোর বিষয়গুলো পেয়েছি। অনেকের গাড়িতে আমরা দেখিছি ফিটনেসের সমস্যা ছিলো। আমরা একটি বিষয় বলতে চাই অপরাধ করে কেউ পার পাবেন না।