কুমারখালীতে স্ত্রীকে পিটিয়ে ও শ্বাসরোধে হত্যার অভিযোগে স্বামী আটক

,জে, সুজন কুষ্টিয়া প্রতিনিধি : কুষ্টিয়ার কুমারখালীতে যৌতুক না পেয়ে স্ত্রীকে পিটিয়ে ও শ্বাসরোধ করে হত্যার অভিযোগ উঠেছে  তার স্বামীর বিরুদ্ধে। আজ শনিবার নন্দলালপুর ইউনিয়নের সোন্দাহ গ্রামে স্বামীর বাড়িতে এই ঘটনা ঘটে। পাষন্ড স্বামী সিরাজুলের ছেলে শফিকুল ইসলাম (২৬) কে আটক করেছে কুমারখালী থানা পুলিশ।

নিহত গৃহবধূ কুমারখালী উপজেলার চাপড়া ইউনিয়নের নগরসাঁওতা গ্রামের পূর্বপাড়ার আনিস উদ্দিনের বড় মেয়ে সোনালী খাতুন(২২)।

নিহতের ভাই উজ্জ্বল  বলেন, চার বছর আগে সোনালী খাতুনের সাথে শফিকুলের পারিবারিক ভাবে বিয়ে হয়। অনিক নামে তাদের দুই বছরের একটি ছেলেসন্তান রয়েছে। বিয়ের পর থেকেই শফিকুল  যৌতুকের দাবিতে সোনালী খাতুনকে মারধর করতো। সোনালীর  সুখের জন্য তার পরিবার থেকে  বেশ কয়েকবার শফিকুলকে টাকা দেওয়া হয়। পূনরায় টাকার জন্য  চাপ সৃষ্টি করলে সোনালী অপারগতা প্রকাশ করায় শফিকুল  শুক্রবার রাতে তাকে নির্মম নির্যাতন করে। নির্যাতনের শিকার সোনালীর অবস্থা আশংকাজনক হওয়ায় শনিবার ভোড়ে তাকে কুষ্টিয়া সদর হাসপাতালে নেওয়া হলে কর্তব্যরত চিকিৎসক মৃত ঘোষণা করেন।

কুমারখালী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) কামরুজ্জামান  বলেন, সোনালী খাতুন নামের গৃহবধূকে পিটিয়ে হত্যার অভিযোগ পাওয়া গেছে তার স্বামীর বিরুদ্ধে। লাশ পোস্ট মর্টেমে  পাঠানো হয়েছে। এ ব্যাপারে মামলার প্রস্তুতি চলছে। এবং ইতিমধ্যে অভিযুক্ত স্বামীকে আটক করা হয়েছে।