কারাগারে থেকেই ইউ’পি চেয়ারম্যান নির্বাচিত

মোঃ আল মামুন, জেলা প্রতিনিধি,ব্রাহ্মণবাড়িয়া: কারাগারে থেকে চেয়ারম্যান পদে নির্বাচন করে জয় পেয়েছেন ইসলামী ঐক্যজোট নেতা মনিরুল ইসলাম। তিনি তার প্রতিদ্বন্দ্বী নৌকা প্রতীকের প্রার্থীকে হারিয়েছেন।
মনিরুল ইসলাম হেফাজতে ইসলামের ভাঙচুর ও অগ্নিসংযোগের ঘটনায় মামলার আসামি। বর্তমানে কারাগারে রয়েছেন তিনি।
বুধবার (৫ জানুয়ারি) ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় পঞ্চম ধাপের ইউনিয়ন পরিষদ (ইউপি) নির্বাচন হয়। এর মধ্যে সদর উপজেলার তালশহর পূর্ব ইউনিয়নের আনারস প্রতীকে চেয়ারম্যান পদে নির্বাচন করেন মনিরুল ইসলাম।
তিনি ৩ হাজার ৯৬১ ভোট পেয়ে বেসরকারিভাবে নির্বাচিত হন। অপরদিকে তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী আওয়ামী লীগ মনোনীত প্রার্থী আব্দুল সালাম নৌকা প্রতীকে পান ২ হাজার ৪৭২ ভোট।মনিরুল ইসলাম সদর উপজেলা ইসলামী ঐক্যজোটের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক।
ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় হেফাজত তাণ্ডবের পৃথক ১৪টি মামলার আসামি হয়ে গত বছরের ২২ জুন থেকে কারাগারে তিনি। ইতোমধ্যে ১৩টি মামলায় জামিন হয়েছে তার। তবে একটি মামলায় এখনও জামিন না হওয়ায় কারামুক্ত হতে পারেননি।
ফলে কারাগারে বসেই ভোটে লড়েন ইসলামী ঐক্যজোটের এ নেতা। তার পক্ষে পরিবারের সদস্যরা এবং দলীয় নেতাকর্মীরা নির্বাচনী প্রচারণা চালান।
ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলা ইসলামী ঐক্যজোটের যুগ্ম সম্পাদক মুফতি এনামুল হাসান বলেন, পরিবারের সদস্যদের পাশাপাশি ঐক্যজোট এবং ছাত্র খেলাফতের স্থানীয় নেতারা মনিরুলের নির্বাচনী প্রচারণা চালিয়েছেন।মনিরুল ইসলামের জয়ের বিষয়টি নিশ্চিত করেন ব্রাহ্মণবাড়িয়া সদর উপজেলা নির্বাচনী কর্মকর্তা জাননাত জাহান।
জেলা কারাগার সূত্রে জানা গেছে, ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির বাংলাদেশ সফরের বিরোধিতা করে গত বছরের ২৬-২৮ মার্চ পর্যন্ত ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় বেশ কয়েকটি সরকারি-বেসরকারি স্থাপনায় হেফাজতে ইসলামের কর্মী-সমর্থকরা হামলা চালান।