কক্সবাজার রাজনীতি  ৭৫ এর হত্যাকান্ড একাত্তরে পরাজয়ের প্রতিশোধ-মাহবুব উল আলম হানিফ

দিদারুল আলম সিকদার, কক্সবাজার জেল প্রতিনিধিঃ বাংলাদেশ আওয়ামীলীগের যুগ্ন সাধারণ সম্পাদক মাহবুব উল আলম হানিফ এমপি বলেছেন, বঙ্গবন্ধুর নেতৃত্বে বাঙ্গালী জাতি যুদ্ধ করে দেশ স্বাধীন করেছে। এটা কারো দয়ার দান না। এখানে ৩০ লাখ মানুষ প্রাণ দিয়েছেন। ইজ্জত দিয়েছেন ৩ লাখ মা বোন। মুক্তিযুদ্ধের এই ইতিহাস সবাই ধারণ করতে হবে, জানতে হবে।
৫০ বছর পরে এসেও সেই ইতিহাস বলতে হচ্ছে এর কারণ হিসেবে তিনি বলেন, ১৯৭৫ সালের ১৫ আগস্ট বঙ্গবন্ধুকে স্ব পরিবারে হত্যার পর নানা মিথ্যাচার করা হয়েছে। এ হত্যাকান্ডের পর প্রচার করা হয়েছিল ক্ষমতা দখলের জন্য বিপদগামি
সেনা সদস্য এ হত্যাকান্ড সংঘটিত করে। কিন্তু এটা সত্য না, এ হত্যাকান্ড পরিকল্পিত। এ হত্যাকান্ড ক্ষমতা দখলের জন্য না, এ হত্যাকান্ড একাত্তরে পকিস্তানী বাহিনীর পরাজয়ের প্রতিশোধ। যেখানে পাকিস্তানের সাথে কিছু ক্ষমতাধর রাষ্ট্র জড়িত ছিল।
কক্সবাজারের ঐতিবাহি পাবলিক লাইব্রেরীর শহীদ দৌলত মাঠে “বিজয়ের দৃপ্ত শপথে উন্নত, সমৃদ্ধ ও অসাম্প্রদায়িক চেতনার সোনার বাংলা গড়ে তোলার প্রত্যয়ে” শ্লোগানে শুরু হওয়া বিজয় মেলার বুধবার সন্ধ্যায় দ্বিতীয় দিনের আলোচনা সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্য তিনি এ কথা বলেন।
মুক্তিযুদ্ধের বিজয় মেলা উদযাপন পরিষদের চেয়ারম্যান পৌর মেয়র মুজিবুর রহমানের সভাপতিত্বে ও মহাসচিব পৌর আওয়ামী লীগের সভাপতি মো. নজিবুল ইসলামের সঞ্চালনায় অনুষ্ঠিত আলোচনা সভায় বক্তব্য রাখেন কেন্দ্রীয় আওয়ামী লীগের ধর্ম বিষয়ক সম্পাদক এড. সিরাজুল মোস্তফা, উপ-প্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদক আমিনুল ইসলাম, আশেক উল্লাহ রফিক এমপি, কানিজ ফাতেমা আহমেদ, জেলা
জাসদের সাধারণ সম্পাদক এড. আবুল কালাম আজাদ, এড. রনজিত দাশ, মাহবুবুর রহমান চৌধুরী ও উজ্জ্বল কর।
এসময় উপস্থিত ছিলেন জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান মোস্তাক আহমদ, সাইমুম সরওয়ার কমল এমপি, কেন্দ্রীয় নেতা শাহজাদা মহিউদ্দিন, মাহফুজুল হায়দার চৌধুরী রোটন, আবদুল খালেক, ইউনুস বাঙালি, জেলা যুবলীগের সভাপতি সোহেল আহমদ
বাহাদুর।
এর আগে জাতীয় সংগীত পরিবেশনের মধ্য দিয়ে শুরু হয় দ্বিতীয় দিনের কার্যক্রম। শেষে অনুষ্ঠিত হয়েছে সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান।
॥ শেষ দিনে কর্মসূচি ॥
৩০ ডিসেম্বর সন্ধ্যা সাড়ে ৫ টা- অতিথিদের আসন গ্রহণ, উদ্বোধনী গান: জয় বাংলা বাংলার জয়, তুমি বাংলার ধ্রুবতারা, আবৃত্তি- প্রতিভা দাশ, একক গান- মিথিলা সেন, সভাপতি : মোহাম্মদ নজিবুল ইসলাম, প্রধান অতিথি: ওয়াসিকা আয়েশা খান এমপি, অর্থ সম্পাদক বাংলাদেশ আওয়ামীলীগ কেন্দ্রীয় নির্বাহী কমিটি। বিশেষ অতিথি: মোস্তাক আহমদ চৌধুরী, প্রধান আলোচক: এড. ফরিদুল ইসলাম, সভাপতি, জেলা আ’লীগ, বীর মুক্তিযোদ্ধা কামাল হোসেন চৌধুরী, বীর মুক্তিযোদ্ধা মুনিরুল আলম চৌধুরী, নঈমুল হক চৌধুরী টুটুল, রেজাউল করিম, মাহাবুবুল হক মুকুল, আবু তাহের চৌধুরী, সাংবাদিক, এড.অরূপ বড়ুয়া তপু, শামশুল আলম মন্ডল, এম. এ মঞ্জুর, আবুল কাশেম বাবু, সঞ্চালনা।