কক্সবাজারের ৪ ইউপিতে যারা নির্বাচিত হয়েছেন শাহাজাহান, ইমরুল, আনোয়ারী ও কালাম চেয়ারম্যান নির্বাচিত  নির্বাচিত

দিদারুল আলম সিকদার, কক্সবাজার জেলা প্রতিনিধি: উখিয়ায় হলদিয়া পালংয়ে ইমরুল কায়েস চৌধুরী, কক্সবাজার সদরে খুরুশকুলে শাহাজাহান সিদ্দিকী, টেকনাফ উপজেলায় হোয়াইংক্যংয়ে নুর আহমদ আনোয়ারী ও কুতুব দিয়ায় বড়ঘোপে আবুল কালাম চেয়ারম্যান নির্বাচিত। স্থগিত ৪ ইউনিয়নে সুষ্ঠ ও শান্তিপূর্ণ ভোটগ্রহণ সম্পন্ন কক্সবাজারে স্থগিত ৪ টি ইউনিয়নের নির্বাচনের ফলাফল ঘোষণা করা হয়েছে। ঘোষিত ফলাফল অনুযায়ী উখিয়ার হলদিয়া পালংয়ে আওয়ামীলীগের বিদ্রোহী প্রার্থী ইমরুল কায়েস চৌধুরী, সদরের খুরশকুলে নৌকার মাঝি শাহাজাহান সিদ্দিকী, টেকনাফের হোয়াইক্যংয়ে জামায়াত নেতা নুর আহমদ আনোয়ারী এবং কুতুবদিয়ার বড়ঘোপে আওয়ামী লীগের আবুল কালাম চেয়ারম্যান হিসেবে বিজয়ী হয়েছেন।
হলদিয়াপালংয়ে ঘোড়া প্রতীকের প্রার্থী ইমরুল কায়েস চৌধুরীর প্রতিদ্বন্দ্বী প্রার্থী ছিলেন নৌকা প্রতীকের প্রার্থী অধ্যক্ষ শাহ আলম।
স্থগিত কেন্দ্রে ঘোড়া প্রতীকের প্রার্থী ইমরুল কায়েস চৌধুরী ১৬৯০ ভোট পান এবং তার নিকটতম প্রতদ্ব›িদ্ব নৌকা প্রতীকের  প্রার্থী অধ্যক্ষ শাহ আলম পান ৯৩১ ভোট।
কুতুবদিয়ার বড়ঘোপ ইউনিয়নে বিজয়ী হন নৌকা প্রতীকের প্রার্থী আবুল কালাম। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী ছিলেন  আ.ন.ম শহীদ উদ্দিন চৌধুরী ছোটন। স্থগিত কেন্দ্রে নৌকা প্রতীক নিয়ে আবুল কালাম ভোট পেয়েছেন ১০৭০ ভোট এবং তাহার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী আ.ন.ম শহীদ উদ্দিন চৌধুরী ছোটন ঘোড়া প্রতীক নিয়ে ভোট পেয়েছেন ৬৮ ভোট।
এছাড়া টেকনাফের হোয়াইক্যং ইউনিয়নে স্থগিত দুটি কেন্দ্রের ফলাফলের পর নির্বাচিত হয়েছেন বর্তমান চেয়ারম্যান নুর আহমদ আনোয়ারী। তাহার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী নৌকা প্রতীকের আজিজুল হক। স্থগিত দুই কেন্দ্রে চমশা প্রতীক নিয়ে আনোয়ারী পেয়েছেন ২৫৩৯ ভোট এবং তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী নৌকা প্রতীক নিয়ে আজিজুল হক পেয়েছেন ৬৩২ ভোট।
খুরুশকুল ইউনিয়নে স্থগিত কেন্দ্রের ভোটে চেয়ারম্যান নির্বাচিত হন নৌকা প্রতীকের প্রার্থী শাহাজাহান সিদ্দিকী। ১নং ওয়ার্ডে পুনঃ ভোট হলে নৌকা প্রতীকের প্রার্থী শাহজাহান ছিদ্দিকী ৯৮৬ ভোট পেয়ে এগিয়ে থাকে। তার প্রতিদ্বন্দ্বী প্রার্থী মুহাম্মদ নুরুল আমিন মোটর সাইকেল প্রতীকে ওই কেন্দ্রে পান ৭৮২ ভোট ।