ঈদগাঁও উপজেলা বাস্তবায়ন পরিষদের আন্দোলন অব্যাহত থাকবে

মোঃ রেজাউল করিম, ঈদগাঁও, কক্সবাজারঃ ঈদগাঁও উপজেলা বাস্তবায়ন পরিষদের উদ্যোগে শীঘ্রই মিলন মেলার আয়োজন করা হবে। যতদিন না ঈদগাঁও পূর্ণাঙ্গ উপজেলা হিসেবে বাস্তবায়িত হবে ততদিন এ সংগঠনের আন্দোলন- সংগ্রাম অব্যাহত থাকবে। সংগঠনটির নেতৃবৃন্দ, সংশ্লিষ্ট জনপ্রতিনিধি, রাষ্ট্রযন্ত্রের কর্মকর্তা, রাজনৈতিক নেতৃবৃন্দ, সচেতন মহল ও গণ্যমান্য ব্যক্তিবর্গ সহ সকলের আন্তরিক প্রচেষ্টায় মাননীয় প্রধানমন্ত্রী ঈদগাঁওকে উপজেলা হিসেবে অনুমোদন দিয়েছেন। কিন্তু উপজেলা বাস্তবায়নের আনুষঙ্গিক কার্যক্রম এখনো শুরু হয়নি। বাস্তবায়ন কার্যক্রম দ্রুত শুরু করতে সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের প্রতি আহ্বান জানিয়েছে সংগঠনটি। ২৪ ডিসেম্বর শুক্রবার রাতে সংগঠন কর্তৃক আয়োজিত এক প্রস্তুতিমূলক সভায় বক্তব্য দানকালে সংগঠনের নেতৃবৃন্দ উপরোক্ত আহ্বান ও বাস্তবায়ন কার্যক্রম ত্বরান্বিত করতে কর্মসূচি অব্যাহত রাখার মতামত দেন। ঈদগাঁও বাজারের অস্থায়ী কার্যালয়ে আয়োজিত এ সভায় সভাপতিত্ব করেন ও সমাপনী বক্তব্য দেন সংগঠনের আহবায়ক সমাজসেবক আলহাজ্ব ছব্বির আহমদ এম, এ।
এতে অন্য নেতৃবৃন্দের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন ডাক্তার আব্দুল কুদ্দুস মাখন, শওকত আলম শওকত, আলহাজ্ব বজল আহমদ, হারুনুর রশিদ চৌধুরি, মুক্তিযোদ্ধা স্বপন চৌধুরী, জানে আলম, সাংবাদিক শেফাইল উদ্দিন, এম, শফিউল আলম আজাদ, মানবাধিকার নেতা রাশেদুল আমির চৌধুরী, নাসির উদ্দিন পিন্টু, মিছবাহ উদ্দিন, মোঃ ওসমান গনি, আশিস কান্তি দাস, মোঃ সোহেল রানা, আজিজুর রহমান রাজু, নুরুল আজিম মিন্টু, মোহাম্মদ জাহেদ হাসান প্রমুখ। শুরুতে সার্বিক বিষয়বস্তু তুলে ধরেন সদস্য সচিব সাংবাদিক মোঃ রেজাউল করিম। এতে উপস্থিত নেতৃবৃন্দ এজেন্ডা ভিত্তিক তাদের মতামত উপস্থাপন করেন। বক্তারা ১৯৯৭ ইংরেজি থেকে
সংশ্লিষ্টতার মাধ্যমে ঈদগাঁও উপজেলা বাস্তবায়ন পরিষদে যিনি বা যারা বিভিন্ন ভাবে সংগঠনের কার্যক্রমকে ত্বরান্বিত করে জনগুরুত্বপূর্ণ এ দাবি আদায়ে বলিষ্ঠ ভূমিকা রেখেছেন তাদের সকলের প্রতি কৃতজ্ঞতা জ্ঞাপন করে স্মৃতিচারণ করেন। এতে আসন্ন ইউনিয়ন পরিষদ এবং উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে এ সংগঠনের পক্ষ থেকে চেয়ারম্যান, ভাইস চেয়ারম্যান, সাধারণ ও সংরক্ষিত সদস্য পদে উপযুক্ত প্রার্থী মনোনয়নের বিষয়টি আলোচনায় স্থান পায়।