ঈদগাঁওতে স্বর্ন মার্কেট দখলের পাঁয়তারাঃ সংঘর্ষের আশঙ্কা

  • মোঃ রেজাউল করিম, ঈদগাঁও, কক্সবাজার
কক্সবাজারের ঈদগাঁও উপজেলার ঈদগাঁও বাজারের স্বর্ন মার্কেটের ব্যবসা প্রতিষ্ঠান জবর দখল পাঁয়তারার  অভিযোগ উঠেছে।
এতে ব্যবসায়ীরা চরম আতংকে রয়েছেন ।এ ঘটনাকে কেন্দ্র করে বড় ধরনের রক্তক্ষয়ী সংঘর্ষের আশঙ্কা করছেন বাজারের ব্যবসায়ীরা।
জানা যায়, ইসলামাবাদ ইউনিয়নের সাবেক মেম্বার রশিদ আহমদের মালিকানাধীন  ঈদগাঁও বাজারের  স্বর্ন মার্কেটের আজমির জুয়েলার্স, আরপি জূয়েলার্স, পার্থ জুয়েলার্স, কৌশিক স্বর্ন শিল্পালয় ও একটি পানের দোকানে দীর্ঘদিন ব্যবসা করে আসছেন সংশ্লিষ্টরা ।
সম্প্রতি একটি চক্র এ ভবন দখলের পাঁয়তারা শুরু করে। গভীর রাতে  মুখোশ পরা শতাধিক লোককে এ মার্কেটের চারপাশ চিহ্নিত করতে দেখতে পান বাজারে থাকা লোকজন। এ সংবাদ দ্রুত ছড়িয়ে পড়লে ব্যবসায়ীরা আতংকিত হয়ে পড়েন । এ ব্যাপারে আরপি জূয়েলার্সের মালিক সনজয় ধর ও অন্যান্য ব্যবসায়ীরা জানান, আমরা এ খবর পেয়ে দোকান মালিক রশিদ আহমদকে জানাই।
 বিষয়টি নিয়ে আমরা দুশ্চিন্তায় দিন কাটাচ্ছি। এ ব্যবসায় প্রতিষ্ঠান নিয়েই আমাদের জীবন- জীবিকা।
মার্কেট মালিক সাবেক মেম্বার রশিদ আহমদ সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, মৃনাল নামের এক ব্যবসায়ী ভুল খতিয়ান সৃজন করে আমার মার্কেট দখলের অপ-পায়তারা চালাচ্ছে। এ ভুল খতিয়ান সংশোধনের জন্য আদালতে মামলা করছি ।
এ মামলার পাওয়ার অব অ্যাটর্নি দিয়েছি ব্যবসায়ী ভবেশ আচার্যকে। এ ব্যাপারে আইনানুগ ব্যবস্থা নেয়া হচ্ছে।
ব্যবসায়ী ভবেশ আচার্য জানান, আদালতে বিএস সংশোধনী মামলা দায়ের করা হয়েছে। ভুল বিএস এর সুযোগ নিয়ে জায়গা দখলের পাঁয়তারা করছে। এ ঘটনায় প্রশাসনের জরুরী হস্তক্ষেপ কামনা করছি।
ঈদগাঁও বাজার ব্যবসায়ী পরিচালনা পরিষদের সাধারণ সম্পাদক রাজিবুল হক চৌধুরী রিকো জানায়, ঈদগাঁও বাজারে কোন ধরনের জবর দখল চলবে না। কোন সমস্যা থাকলে এটা আমরা উভয় পক্ষ নিয়ে বসে সমাধানের চেষ্টা করব।  জালালাবাদ ইউনিয়নের চেয়ারম্যান ইমরুল হাসান রাশেদ জানান, এ ধরনের খবর শুনেছি। তবে আমি জানি এ মার্কেট সাবেক রশিদ আহমদের। ভাড়া নিয়ে দীর্ঘদিন ব্যবসা- বাণিজ্য করে আসছেন  বিভিন্ন ব্যবসায়ীরা। এখানে কেউ দখল করতে পারবে না। কোন সমস্যা থাকলে বসে সমাধানের চেষ্টা করব।
 ঈদগাঁও থানার অফিসার ইনচার্জ মোহাম্মদ গোলাম কবির জানান, অভিযোগ পেলে আইনানুগ ব্যবস্থা নেয়া হবে। কোন ধরনের জবর দখল চলবে না ঈদগাঁওতে। কোন সমস্যা থাকলে স্থানীয় ভাবে সমাধান করলে ভালো হবে। শান্তি- শৃঙ্খলা রক্ষায় আমরা সব সময় নিবেদিত।
 এদিকে রক্তক্ষয়ী সংঘর্ষ এড়াতে বাজার ব্যবসায়ীরা প্রশাসনের জরুরী হস্তক্ষেপ কামনা করেছেন।
তবে আনীত অভিযোগ অস্বীকার করে মৃণাল আচার্য জানান, এ ধরনের কোন ঘটনা এখানে ঘটেনি। সংশ্লিষ্ট এলাকার ব্যবসায়ী ও বাজারবাসীরা তা ভালো জানেন। তিনি এসবকে ষড়যন্ত্রমূলক বলে আখ্যায়িত করে বলেন, অতীতেও এ ধরনের ষড়যন্ত্র করা হয়েছিল।