‘আলোকিত বিশ্বনাথ’ গঠনের লক্ষ্যে নুনু মিয়ার নির্বাচনী প্রতিশ্রুতি বাস্তবায়নের কার্যক্রম শুরু

ফারুক আহমদ,বিশ্বনাথ প্রতিনিধিঃ ‘আলোকিত বিশ্বনাথ’ গঠনের লক্ষ্যে সিলেটের বিশ্বনাথ উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান ও জেলা আওয়ামী লীগের উপদেষ্টা মন্ডলীর সদস্য এস এম নুনু মিয়ার নির্বাচনী প্রতিশ্রুতি কার্যক্রম শুরু হয়েছে। করোনা মহামারীতে আটকে থাকা নুনু মিয়ার মেঘা প্রকল্পগুলোর কার্যক্রম অবশেষে আলোরমুখ দেখতে যাচ্ছে। আর এর প্রথম দাফ হিসেবে উপজেলায় নিরাপদ পানি সরবরাহ ও স্যানিটেশন ব্যবস্থা উন্নয়নের জন্য সরকার থেকে এনেছেন ৩৯ কোটি ৬ লাখ ৫৮ হাজার টাকা বরাদ্ধ।

বরাদ্দ আসার পর রোববার ৫ ডিসেম্বর সকালে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা’কে অভিনন্দন ও পরিকল্পনা মন্ত্রী এম এ মান্নানের প্রতি কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করে স্থানীয় সাংবাদিকদের মাধ্যমে উপজেলাবাসীকে আনুষ্ঠানিকভাবে বরাদ্ধের সংবাদ জানাতে উপজেলা বিআরডিবি মিলনায়তনে প্রেস বিফিং করেন উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান এস এম নুনু মিয়া।

প্রেস বিফিংয়ে তিনি জানান আল্লাহ সহায় থাকলে শীঘ্রই উপজেলাবাসীর কল্যাণের জন্য ৩০ কোটি টাকার একটি ও ৭০ কোটি টাকার আরেকটি মেঘা প্রকল্প আসবে। যার সঠিক বাস্তবায়নের মাধ্যমে আমাদের স্বপ্নের বিশ্বনাথ উপজেলাকে সাজানো হবে রঙ্গিন করে। আর এগুলোর মাধ্যমে গঠিত হবে ‘আলোকিত বিশ্বনাথ’।

প্রেস বিফিংয়ে লিখিত বক্তব্য পাঠ করেন উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান ও জেলা আওয়ামী লীগের উপদেষ্টা মন্ডলীর সদস্য এস এম নুনু মিয়া।
লিখিত বক্তব্যে তিনি বলেন, ২০১৯ সালে আমার নির্বাচনী জনসভায় এসে আমার অভিভাবক তৎকালীন অর্থমন্ত্রী জনাব আবুল মাল আব্দুল মুহিত সাহেব এসে বিশ্বনাথবাসীকে বলে ছিলেন আমি নির্বাচিত হলে উপজেলাবাসী উন্নয়ন হবে। আমি উনার কথার বাস্তবায়নের লক্ষ্যে কাজ করে যাচ্ছি। যার ফলে ইতিমধ্যে বিশ্বনাথ উপজেলার ২৪টি কাঁচা রাস্তার উন্নয়ন প্রকল্প অনুমোদিত হয়েছে ও ২৭টি সড়কের সংস্কার কাজের টেন্ডার সম্পন্ন হয়েছে। শীঘ্রই এসব রাস্তাগুলোর কাজ শুরু হবে। বিশ্বনাথ ইউনিয়ন স্বাস্থ্য কেন্দ্রকে ১২ শয্যায় উন্নীত করার লক্ষ্যে আমার প্রচেষ্টা অব্যাহত রয়েছে। আমার জন্য শুধু আপনারা দোয়া করবেন, আপনাদের সকলের সার্বিক সহযোগীতায় আমি যেনো বিশ্বনাথবাসীর কল্যাণের জন্য সঠিকভাবে নিজের দায়িত্ব পালন করে যেতে পারি।

লিখিত বক্তব্য পাঠের পর স্থানীয় সাংবাদিকদের বিভিন্ন প্রশ্নের উত্তর দেন উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান ও জেলা আওয়ামী লীগের উপদেষ্টা মন্ডলীর সদস্য এস এম নুনু মিয়া।

এদিকে প্রেস বিফিং-এ আসার পূর্বে উপজেলাবাসীর পক্ষ থেকে রশিদপুরে নুনু মিয়াকে স্বাগত জানান উপজেলাবাসী। এরপর বিশাল মোটর সাইকেল শোভাযাত্রা দিয়ে আ’লীগ ও অঙ্গ-সহযোগী সংগঠনের নেতৃবৃন্দ তাকে বিশ্বনাথে নিয়ে আসেন।

উপজেলা আওয়ামী লীগের যুগ্ম সম্পাদক ও দৌলতপুর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান আমির আলীর পরিচালনায় অনুষ্ঠিত প্রেস বিফিংয়ে উপস্থিত ছিলেন উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) ও পৌর প্রসাশক নুসরাত জাহান, কৃষি কর্মকর্তা কনক চন্দ্র রায়, বিশ্বনাথ সদর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান ছয়ফুল হক, লামাকাজী ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান কবির হোসেন ধলা মিয়া, রামপাশা ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান অ্যাডভোকেট মোহাম্মদ আলমগীর, অলংকারী ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান নাজমুল ইসলাম রুহেল, দশঘর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান এমাদ উদ্দিন খান, উপজেলা আওয়ামী লীগের সাবেক সভাপতি মজম্মিল আলী, সাবেক সহ সভাপতি খলিলুর রহমান মাষ্ঠার, বর্তমান কমিটির ভারপ্রাপ্ত সাধারণ সম্পাদক ফারুক আহমদ, সহ সভাপতি সামছু মিয়া, মোহাম্মদ আসাদুজামান, হিরণ মিয়া, সেলিম আহমদ, যুগ্ম সম্পাদক মকদ্দছ আলী, সাংগঠনিক সম্পাদক আব্দুল আজিজ সুমন, বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিষয়ক সম্পাদক মাহবুবুর রহমান লিলু, ত্রাণ ও সমাজ কল্যাণ সম্পাদক আব্দুল মতিন, কার্যনির্বাহী সদস্য ফখর উদ্দিন মাষ্ঠার, তপন কুমার দাশ, রফিক হাসান, পৌর আওয়ামী লীগের আহবায়ক আব্দুল জলিল জালাল, যুগ্ম আহবায়ক মহব্বত আলী, বিশ্বনাথ সদর ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের আহবায়ক শাহনেওয়াজ চৌধুরী সেলিম, আওয়ামী লীগ নেতা ফারুক আহমদ, বসির আহমদ, নজরুল ইসলাম, আব্দুল মোমিন, দিলোয়ার হোসেন রুপন, আব্দুন নূর, শংকর চন্দ্র ধর, অরবিন্দ্র পাল, সুলতান মিয়া, তাহিদ মিয়া, মো. আব্দুর রব, ইউনিয়ন পরিষদের মেম্বার সায়েক আহমদ, চমক আলী, রফিক আলী, যুবলীগ নেতা সিতার মিয়া, জহুর আলী মেম্বার, শাহ আলম খোকন, তাজুল ইসলাম, মনোহর হোসেন মুন্না, আসাদ মিয়া, নাসির মিয়া, জমির মিয়া, দৌলতপুর ইউনিয়ন যুবলীগের সভাপতি ও পৌর আও’লীগের সদস্য মো. দবির মিয়া, জেলা স্বেচ্ছাসেবক লীগের তথ্য ও গবেষণা সম্পাদক বিভাংশু গুন বিভু, স্বেচ্ছাসেবক লীগ নেতা নিজাম মিয়া, উপজেলা স্বেচ্ছাসেবকলীগের প্রচার সম্পাদক আর জে সিজিল মিয়া প্রমুখসহ আওয়ামী লীগ ও অঙ্গ-সহযোগী সংগঠনের নেতৃবৃন্দ।